মেইন ম্যেনু

কিরণমালা দেখতে না পেরে শিশুর আত্মহত্যা

মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার দড়ি রাজনগর গ্রামে ইমন আলী (৭) নামে এক শিশু গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

মঙ্গলবার রাতে ভারতীয় টিভি চ্যানেল ‘স্টার জলসায়’ কিরণমালা সিরিয়াল দেখতে না নেয়ায় শিশুটি গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে স্বজনরা জানিয়েছে।

ইমন ওই গ্রামের বাউলশিল্পী শের আলীর ছেলে।

শের আলী জানান, তিন ভাই ও এক বোনের মধ্যে ইমন মেজো। মঙ্গলবার রাত সাড়ে আটটার দিকে তিনি পাশের বাড়ি টেলিভিশনে কিরণমালা দেখতে যান।

এরপর ইমন ও ছোট ছেলে সুমন আহমেদকে (৪) ঘরে রেখে বাইরে থেকে দরজা আটকিয়ে তাদের মা বেবী আক্তারও টেলিভিশন দেখতে আসে।

এতে ইমন কিরণমালা দেখতে না পেয়ে অভিমান করে ঘরের ভেতর গলায় রশি পেঁচিয়ে ফাঁস নেয়। তা দেখে দরজার নিচের ফাঁকা দিয়ে সুমন বেড়িয়ে এসে মা-বাবাকে ডেকে নেয়। আমরা ইমনকে নামিয়ে হাসপাতালে নেয়ার চেষ্টা করি।

ততক্ষণে মৃত্যু নিশ্চিত হওয়ায় তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়নি বলেও জানান শের আলী।

বেবী আক্তার জানান, ইমন তার সঙ্গে কিরণমালা দেখতে যেতে চেয়েছিল। কিন্তু, সুমন ঘরে একা শুয়ে থাকবে বলে ইমনকে সঙ্গে নেয়া হয়নি। তাই অভিমান করে সে আত্মহত্যা করেছে।

আর দুই বছর আগে ইমনের বড় ভাই সাইফুল ইসলাম (১০) গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছিল বলে জানান তিনি।

এ ব্যাপারে সিংগাইরের শান্তিনগর পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের ইনচার্জ আওলাদ হোসেন জানান, রাতেই শিশুটির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সদর হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।






মন্তব্য চালু নেই