মেইন ম্যেনু

কিশোরগঞ্জে বাল্য বিবাহ আয়োজকের হাতে সাংবাদিক লাঞ্চিত ॥ থানায় অভিযোগ

খাদেমুল মোরসালিন শাকীর, কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি॥ কিশোরগঞ্জ উপজেলায় বাল্য বিবাহের তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে বাল্য বিবাহের আয়োজকের হাতে এক সাংবাদিক লাঞ্চিত হয়েছে।

শুক্রবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কিশোরগঞ্জ উপজেলার কয়েকজন সংবাদকর্মী বাল্য বিবাহের খবর পেয়ে তথ্য সংগ্রহ করার জন্য উপজেলার মাগুড়া ইউনিয়নের পীর ফকির পাড়া গ্রামের রবিউল ইসলামের বাড়ীতে গেলে সংবাদকর্মীদের উপস্থিতি টের পেয়ে বাড়ীর সবাই পালিয়ে যায়।

পরে স্থানীয় লোকদের মাধ্যমে বাল্য বিবাহের বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে সংবাদকর্মীরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করলে স্থানীয় মাতবর জাকারিয়া হোসেন দিদার (৪২) ওই এলাকার সাংবাদিক সাপ্তাহিক উত্তরের হালচালের ষ্টাফ রিপোর্টার সামসুজ্জামান সুমনকে বাড়ী থেকে ডেকে নিয়ে বেধরক মারধর করে আহত করে। সাংবাদিক সুমন তার অপরাধ জানতে চাইলে তিনি বলেন উপজেলার সকল সাংবাদিককে তুমি খবর দিয়েছ।

এ অপরাধে তাকে মারধর করা হয় এবং সাংবাদিকদের বিষয়ে অশালিন মন্তব্য করেন। পরে স্থানীয় লোক সাংবাদিক সুমনকে উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ব্যাপারে কিশোরগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এ ব্যাপারে কিশোরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজার রহমানের সাথে কথা হলে তিনি জানান,তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সাংবাদিককে লাঞ্চিত করায় দ্রুত অপরাধীকে গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছে দৈনিক ইত্তেফাকের কিশোরগঞ্জ উপজেলা সংবাদদাতা শামীম হোসেন বাবু,দৈনিক সংবাদের উপজেলা প্রতিনিধি সি এস এম তপন দৈনিক বায়ান্নর আলো ও দৈনিক খোলা কাগজের উপজেলা প্রতিনিধি খাদেমুল মোরসালিন শাকীর, দৈনিক দাবানলের কিশোরগঞ্জ উপজেলা নিজস্ব সংবাদদাতা কাওছার হামিদ,দৈনিক মানববার্তা ও আমাদের অর্থনীতির কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি মিজানুর রহমান,দৈনিক রংপুর চিত্রের প্রতিনিধি রউফুল আলম ও বালাদেশ টু ডের কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি মহিউদ্দিন শেখ প্রমূখ।






মন্তব্য চালু নেই