মেইন ম্যেনু

কিশোরগঞ্জে বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ পালিত

কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি : “টেকসই উন্নয়ন লিডমাদার প্রশিক্ষণ” উক্ত শ্লোগানকে সামনে রেখে এবং তৃতীয় ছাছটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোল অর্জন এর কৌশলী পদক্ষেপ প্রেগন্যান্ট ওমেন সাপোর্ট গ্র“প এর নেতৃত্বদানকারী মায়েদের দুইদিন ব্যাপী প্রশিক্ষনের আয়োজন করা হয়।লিড মাদার প্রশিক্ষণ হলো এক ধরনের কর্মপন্থা যার মাধ্যমে একটি বড় স্বেচ্ছাসেবক নেটওয়ার্ককে দক্ষ করে তাদের দ্বারা নির্দিষ্ট এলাকা এবং খানা পর্যায়ের সকল গর্ভবতী মহিলাদের স্বাস্থ্য ও পুষ্টি বিষয়ক বার্তাসমূহ দেয়া যাবে। দেশে নবকলি প্রজেক্ট-ই প্রথম এর যাত্রা শুরু করলো। এই মডেল গর্ভবতী মহিলাদের স্বাস্থ্য ও পুষ্টি সমস্যা সমাধানের উপর গুরুত্বারোপ করবে এবং তাদের স্বাস্থ্যকর খাদ্যগ্রহণ ও স্বাস্থ্য ও পুষ্টি বিষয়ক আচরণগত পরিবর্তন আনয়ন নিশ্চিত করবে। এলাকার নিউট্রিশন প্রোমোটাররা এই পিডব্লিউএসজি গঠন করবে এবং সকল গর্ভবতী মহিলাদের এই গ্র“পে অন্তর্ভূক্ত করবে। প্রত্যেক নিউট্রিশন প্রোমোটার তার কর্ম এলাকার মধ্যে নেতৃত্ব দিতে পারে এমন মাকে লিড মাদার হিসেবে চিহ্নিত ও নির্বাচিত করা হয়। একজন নিউট্রিশন প্রোমোটার একটি এলাকার ৩০০ খানার গর্ভবতী ও প্রসুতি মহিলাদের সহযোগিতা করার জন্য একজন লিড মাদারকে প্রশিক্ষণ করানোর জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত হবে। লিড মাদার প্রকল্পের চাহিদানুযায়ী বিভিন্ন দক্ষতা উন্নয়ন অনুষ্ঠানে এবং মাসিক সভায় অংশগ্রহণ করবে।

ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ-নবকলি প্রজেক্ট কর্তৃক আয়োজিত এ প্রশিক্ষণ উদ্বোধন করেন কিশোরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডা. মোঃ গওছুল আজীম চৌধুরী। উক্ত প্রশিক্ষণ পরিচালনা করেন নবকলি প্রজেক্ট এর হেলথ্ অফিসার মোঃ ওয়াদুদ হোসেন। প্রশিক্ষণে অংশগ্রহন করেন উপজেলার ৫২টি কমিউনিটি’র ৫২ জন লিড মাদার ও প্রজেক্ট এর মাঠ পর্যায়ের সকল স্বাস্থ্যকর্মীবৃন্দ।






মন্তব্য চালু নেই