মেইন ম্যেনু

কিশোরগঞ্জ উপজেলার শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান দুলাল আর নেই

নীলফামারী জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলার মাগুড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোজাহার হোসেন দুলাল আর নেই (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। শনিবার রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল (৬৮) বছর। তিনি স্ত্রী, তিন পুত্র, ভাই,বোন ও আত্মীয় স্বজনসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে যান।
মোজাহার হোসেন দুলাল মিঞা মাগুড়া ইউনিয়নের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মরহুম মোশাররফ হোসেন লেবু মিঞার ২য় পুত্র এবং দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার সাব-এডিটর মোদাব্বের হোসেন মিয়ার বড় ভাই।
তিনি মাগুড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ব্যাপক ভোটের ব্যবধানে দু’বার নির্বাচিত হন। গত ২০১৪-২০১৫ অর্থ বছরে লোকাল গভর্মেন্ট সাপোর্ট প্রোগ্রাম (এলজিএসপি) এবং ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার’র সফলতার জন্য নীলফামারী জেলার মধ্যে শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় বেগম সুফিয়া কামাল পদক লাভ করেন।

মরহুমের বিদায়ী আত্মার মাগফেরাত কামনা সহ শোক সন্তাপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গবীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন কিশোরগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রশিদুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিদ্দিকুর রহমান, কিশোরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজার রহমান, কিশোরগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফজল কাদির, সাংবাদিক কাওছার হামিদ, খাদেমুল মোরসালিন শাকীর, মিজানুর রহমান, আবু হাসান শেখ তনা, সিএসএম তপন, বিপিএম জয়, জোনাব আলী, সাগর, কিশোরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এছরারুল হক, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন বাবুল, উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি অধ্যাপক রাজ্জাকুল ইসলাম রাজা, সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা পাটোয়ারী, উপজেলা জামায়াতের আমীর আখতারুজ্জামান বাদল, সেক্রেটারী আব্দুর রশিদ শাহ্, উপজেলা শিবির সভাপতি শিব্বির আহম্মেদ, সেক্রেটারী সারওয়ার হোসাইন, কিশোরগঞ্জ সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রশিদুল ইসলামসহ ৯ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যবৃন্দ।
মরহুমের ২য় ছেলে আমেরিকা প্রবাসী রেদওয়ান মিঞা দেশে ফেরার পর তার দাফন কাজ সম্পন্ন করা হবে বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।






মন্তব্য চালু নেই