মেইন ম্যেনু

কিশোরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের কার্যক্রম শুরু হয়নি

কিশোরগঞ্জ উপজেলার ফায়ার সার্ভিসের গাড়ী, জনবল, মালামাল থাকার পরেও দীর্ঘ ৬ মাসে শুরু হয়নি এর আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম।

কিশোরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স ষ্টেশনের নিমার্ণ প্রতিষ্টান গত ৩০ এপ্রিল’ ২০১৫ তারিখে বিল্ডিং হস্তান্তর করেন। এর পরেই দেয়া হয় একটি আধুনিক পানিবাহী গাড়ী, পাম্প ও মালামাল। সংশিষ্ট কর্তৃপক্ষ এখানে ৫ জনকে নিয়োগ দেন। প্রয়োজনীয় আসবাবপত্রও সরবরাহ করেন কর্তৃপক্ষ।

এদিকে দীর্ঘদিন অতিবাহিত হলেও অজ্ঞাত কারণে এই ষ্টেশনের আগুন নেভানোর কার্যক্রম শুরু হয়নি আজও। এখানকার পানিবাহী গাড়ীটি এখন উত্তরা ইপিজেড ষ্টেশনে কাজ করছে। আর ২টি পাম্প দেয়া হয়েছে ডোমার ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশনে। ইতোমধ্যে ১জন লিডার, ২জন ফায়ারম্যান, ১জন বাবুর্চি ও ১জন ঝাড়–দারকে জলঢাকা ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশনে ডিপুটেশন দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

এ ব্যাপারে নীলফামারী ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স ষ্টেশনের উপ সহকারী পরিচালক কোবাদ আলীর সাথে কথা হলে তিনি জানান, “ড্রাইভার স্বল্পতার কারণে কিশোরগঞ্জ ইউনিটের কার্যক্রম চালু হয়নি। এ ব্যাপারে উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হয়েছে।”






মন্তব্য চালু নেই