মেইন ম্যেনু

কুকুরের মাংস খাওয়ার উৎসব!

চীনের গুয়াংজি জুয়ায়ের ইউলিনে প্রতি বছর জুন মাসে ‘ডগ মিট ফেস্টিভাল’ অনুষ্ঠিত হয়। এই অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে চলে কুকুর জবাইয়ের মহোৎসব। এ সময় প্রায় ১০ হাজার কুকুর ও বিড়াল জবাই করা হয়। এ অনুষ্ঠান ছাড়াও ইউলিনে বছরজুড়ে প্রতিদিন প্রায় ৩০০টি কুকুর জবাই করা হয়।

পশুপ্রেমী আর পশু অধিকার সংরক্ষণ কর্মীরা চীনের কুকুরের মাংস খাওয়ার এই নির্মম উৎসবের কড়া সমালোচনা করেছেন। পশুপ্রেমী আর পশু অধিকার সংরক্ষণ কর্মীদের শান্ত করতে ইউলিনের স্থানীয় কর্মকর্তারা বলছে, কুকুর শুধু উৎসবের সময়ই জবাই করা হবে। সারা বছর কোনো কুকুর জবাই করা হবে না।ইউলিনে কুকুরের মাংস খাওয়ার উৎসব!

সম্প্রতি পশু অধিকার সংরক্ষণকারী সংস্থা হিউমেন সোসাইটি ইন্টারন্যাশনাল ইউলিন সফর করেছেন। তারা ইউলিনের তিনটি কুকুর জবাইয়ের দোকানে প্রতিদিন ৩০০টি কুকুর জবাই করতে দেখেছেন। কুকুরগুলোকে জবাই করার আগে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে মারা হয়। তাও আবার অন্য কুকুরের সামনে। এ নির্মম হত্যাকাণ্ড দেখে মানসিক কষ্টে ভোগে বন্দী কুকুরগুলো।

ইউলিনের হোটেলে হরদম কুকুরের মাংস বিক্রি হয়। এক পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, চীনে প্রতি বছর ১০ থেকে ২০ মিলিয়ন কুকুর জবাই করা হয়।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) বলছে, কুকুরের মাংস খাওয়ায় ফলে দিন দিন স্বাস্থ্য ঝুঁকি বাড়ছে। বাড়ছে কলেরা ও জলাতঙ্কে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা।






মন্তব্য চালু নেই