মেইন ম্যেনু

কুন্দুজ হাসপাতালে মার্কিন হামলা, নিহত ৯

আফগানিস্তানের যুদ্ধবিধ্বস্ত শহর কুন্দুজে বিদেশি সহায়তায় পরিচালিত এক হাসপাতালে শুক্রবার মধ্যরাতে মার্কিন বিমান হামলায় কমপক্ষে ৯ কর্মচারী নিহত এবং আরো ১৯ হাসপাতাল কর্মচারীসহ ৩৭ জন আহত হয়েছেন। হামলায় হাসপাতাল ভবনটিও ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে দাতব্য গোষ্ঠী মেডিসিনস সানস ফ্রন্টিয়ার্স (এমএসএফ)’র বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে রয়টার্স।

শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত সোয়া দুইটার দিকে কুন্দুজের ওই হাসপাতালে বোমা হামলার ঘটনাটি ঘটে। তবে আফগান সেনাবাহিনী না মার্কিন বিমানবাহিনী ওই হামলা চালিয়েছে তাৎক্ষণিকভাবে তা জানা যায়নি।

শুক্রবারের ওই হামলায় হাসপাতালের কমপক্ষে ৯ কর্মচারী নিহত এবং আরো ৩৭ জন আহত হয়েছেন বলে বিবিসির সর্বশেষ খবরে জানা যায়। এখনো নিখোঁজ রয়েছেন আরো ৩০ কর্মচারী। তবে হতাহতরা কোন দেশের নাগরিক তা জানা যায়নি। এতে কয়েকজন রোগীও প্রাণ হারিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। তবে নিহত রোগীদের সংখ্যা জানা যায়নি।

তবে এক বিবৃতিতে ন্যাটো জানিয়েছে,‘সম্ভবত মার্কিন বাহিনী শুক্রবার রাতে কুন্দুজ শহরে দাতব্য গোষ্ঠী ডক্টর্স উইদাউট বর্ডার্স পরিচালিত ওই হাসপাতালটিতে বিমান হামলা চালিয়েছে।’ কেননা ওই সময় মার্কিন বাহিনী কুন্দুজে বিমান হামলা চালাচ্ছিল।

এক বিবৃতিতে এমএসএফ জানিয়েছে,‘হামলার ঘটনায় আমরা গভীরভাবে মর্মাহত। এতে আমাদের চার কর্মী এবং কয়েকজন রোগী প্রাণ হারিয়েছেন। এছাড়া এতে হাসপাতাল ভবনটিও ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।’ তারা আরো জানিয়েছে, হামলার সময় হাসপাতালে ১০৫ জন রোগী এবং দেশি বিদেশি ৮০ জনের বেশি কর্মচারী অবস্থান করছিলেন। দাতব্য গোষ্ঠী এমএসএফের সহায়তায় কুন্দুজের ওই হাসপাতালটি পরিচালিত হচ্ছে।

কুন্দুজ শহরের দখল নিতে গত ছয় দিন ধরে তালেবান বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে মরণপণ লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে আফগান সরকারি বাহিনী। আফগান সেনাদের সহায়তায় বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে বিমান হামলা চালিয়ে যাচ্ছে মার্কিন বাহিনী। আফগান বাহিনী শহরের বেশিরভাগ এলাকা দখলে নেয়ার দাবি করার একদিন পর শুক্রবারও দু পক্ষের মধ্যে তুমুল লড়াইয়ের খবর পাওয়া গেছে। কুন্দুজে এখনো শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে তালেবানরা।

এদিকে কুন্দুজের হাসপাতালে বোমা হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ডক্টর্স উইদাউট বর্ডার্স।






মন্তব্য চালু নেই