মেইন ম্যেনু

কুমিল্লায় বাসে পেট্রোল বোমা হামলায় দগ্ধ ৭

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার চান্দিনায় যাত্রীবাহী বাসে পেট্রোল বোমা ছুড়েছে দুর্বৃত্তরা। এতে সাতজন দগ্ধ হয়েছেন।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টায় এ ঘটনা ঘটে।

চান্দিনা থানার ওসি রসুল আহমেদ নিজামী জানান, ঢাকা থেকে রাঙ্গামাটিগামী ইউনিক পরিবহণের যাত্রীবাহী বাসটি (ঢাকা-মেট্রো-ব ১৪-৭৬৪৮) চান্দিনা পাট গবেষণা কেন্দ্র এলাকা অতিক্রমকালে দুর্বৃত্তরা পেট্রোলবোমা ছোড়ে। এতে সাতজন দগ্ধ হন।

আহতদের প্রথমে পার্শ্ববর্তী ইস্টার্ন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাদেরকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নেওয়া হয়। দগ্ধদের দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে তাদেরকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়।

কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. হাবিব আবদুল্লাহ সোহেল জানান, সাতজনের মধ্যে দুজনকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে, দুজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। বাকি তিনজন বার্ন ইউনিটে ভতি রয়েছেন।

আহতদের মধ্যে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন রাঙামাটি সদরের বড়ধোনা এলাকার যুক্তমনি চাকমার ছেলে খোকন চাকমা (৩৩), রাঙামাটি সদরের সুনীল চন্দ্র নাথের ছেলে সুমন চন্দ্রনাথ (৩০), গোপালগঞ্জ সদরের এমরান (২৫)। প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ থানার আবুল হোসেনের ছেলে জহিরুল ইসলাম ফারুক (২৫) ও তার স্ত্রী লাভলী আক্তার।

ঢাকায় পাঠানো হয়েছে রাঙামাটি সদরের ভবেন্দ্র চন্দ্র দেবনাথের ছেলে অঞ্জন কুমার দেবনাথ (৪০) ও হরিপদ শর্মার ছেলে রঞ্জিত শর্মাকে।

ঢামেক সূত্রে জানা গেছে, অঞ্জন কুমারের শরীরের ২৬ শতাংশ ও সঞ্জিত শর্মার ৪৪ শতাংশ পুড়ে গেছে।প্রতীকী ছবি






মন্তব্য চালু নেই