মেইন ম্যেনু

কুমিল্লায় বিস্ফোরণে ছাত্রী দগ্ধ

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশে একটি বেসরকারি ছাত্রী নিবাসে বিস্ফোরণে অর্থনীতি নবম ব্যাচের ছাত্রী ফাহমিদা হাসান নিশা মারাত্মক দগ্ধ হয়েছেন।

তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় মঙ্গলবার সকালে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।

তবে বিস্ফোরণটি গ্যাস লাইনের ক্রটি থেকে নাকি বোমা তা এখনো নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ। বর্তমানে ওই ছাত্রী ঢামেকে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন।

জানা যায়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশে সালমানপুর এলাকায় হেভেন ছাত্রী নিবাসের পঞ্চম তলা ভবনের নিচতলায় কুবির ছাত্রী নিশা থাকতেন।

মঙ্গলবার ভোর সোয়া ৬টার দিকে হঠাৎ বিকট বিস্ফোরণে ওই এলাকায় কেঁপে ওঠে। এ সময় ওই ছাত্রীর পুরো শরীর ঝলসে যায়। তাকে উদ্ধার করে কুমেক হাসপাতালে নেওয়ার পর প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সকাল পৌনে ৮টার দিকে ঢামেকের বার্ন ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়।

কুবির প্রক্টর আইনুল হক জানান, ওই বিস্ফোরণটি গ্যাস লাইন থেকে নাকি অন্য কোনো কারণে ঘটেছে তা আইন প্রয়োগকারী সংস্থা খতিয়ে দেখছে।

কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের বিভাগীয় প্রধান ডা. মির্জা তাইয়েবুল ইসলাম জানান, ওই ছাত্রীর শ্বাসনালীসহ শরীরের ৬৫ শতাংশ পুড়ে গেছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (দক্ষিণ) আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে র‌্যাব, পুলিশ, ডিবির টিম ছুটে যায়। কি কারণে ওই বিস্ফোরণ ঘটেছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।






মন্তব্য চালু নেই