মেইন ম্যেনু

কুষ্টিয়ায় নিখোঁজ বিএনপি নেতার কঙ্কাল উদ্ধার

এক বছর আগে নিখোঁজ হওয়া কুষ্টিয়ার কুমারখালীর গড়াই ইটভাটার মালিক ও বিএনপি নেতা মিরাজুল ইসলাম মিরাজের কঙ্কাল উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে কুমারখালী থানার পুলিশ লাহিনীপাড়া মীর মোশাররফ হোসেন সেতুর পাশে বালুর তলদেশ থেকে মিরাজের দেহের কঙ্কালের কিছু অংশ উদ্ধার করে। মিরাজ লাহিনীপাড়ার মৃত আব্দুল গণি শেখের পুত্র।

কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়াউর রহমান জানান, ২০১৫ সালের ৪ জুন মিরাজ তার ব্যবসায়ীক পার্টনার কোহিনুরের মোটরসাইকেলে বাড়ি থেকে লাহিনী বটতলা মোড়ে আসার পর নিখোঁজ হন। এ ঘটনায় পর দিন ৫ জুন মিরাজের স্ত্রী শখি খাতুন কুমারখালী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। পরে পুলিশ তদন্ত করে হত্যায় জড়িত অভিযোগে ৯ জনকে শনাক্ত করে। এর মধ্যে পুলিশ ৭ জনকে আটক করে। বর্তমানে ৬ জন জেল হাজতে রয়েছে। দুইজন পলাতক এবং একজন জামিনে আছে। আটককৃতদের মধ্যে সলেমান আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে মিরাজ হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন। তার স্বীকারোক্তিতে বুধবার রাতে গড়াই নদীর বালুর তলদেশ থেকে মিরাজের কঙ্কাল উদ্ধার করা হয়।

কুষ্টিয়া জেলা বিএনপির দপ্তর সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক বাচ্চু জানান, মিরাজ কুমারখালী উপজেলার চাপড়া ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই