মেইন ম্যেনু

শিক্ষা কার্য্যক্রম ব্যাহত

কুড়িগ্রামের রৌমারীর বাইটকামারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে খোলা আকাশের নিচে পাঠদান

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার বন্দবেড় ইউনিয়নের বাইটকামারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে খোলা আকাশের নীচে চলছে পাঠদান কার্যক্রম। এ অবস্থায় আসন্ন বর্ষা মৌসুম নিয়ে দুঃচিন্তায় আছেন ছাত্র/ছাত্রী, শিক্ষক ও অভিভাবকরা। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় বিদ্যালয়ের টিনশেড ঘরে ৫ টি ক্লাসের জায়গা সংকুলান না হওয়ায় খোলা আকাশের নিচে ৮ম শ্রেণীর কমলমতি শিক্ষার্থীদের অংক ক্লাসের পাঠদান করানো হচ্ছে।

ছাত্র/ছাত্রীর অভিভাবকরা জানান, ব্রহ্মপুত্রের অববাহিকার বাইটকামারী চরাঞ্চলে বিশাল এলাকায় কোন মাধ্যমিক স্কুল না থাকায় এখানকার অভিভাবকরা বাধ্য হয়ে বাইটকামারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে তাদের সন্তানদের ভর্তি করিয়েছেন। কিন্তু বিদ্যালয়টি পাঠদানের অনুমোদন পেলেও সরকারী ভাবে ঘর নির্মাণ করা হয়নি। এ অবস্থায় বিদ্যালয়ে ভর্তি করা ছেলে-মেয়েদের নিয়ে দুঃচিন্তায় আছেন তারা। আসন্ন বর্ষা ও বন্যা মৌসুমে ছেলে-মেয়েদের পাঠদান ব্যাহত হবে বলে জানান তারা।

এ অবস্থায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অভিভাবকসহ এলাকাবাসীর দাবী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি সরেজমিনে পরির্দশন করে শিক্ষারমান উন্নয়নে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হোক।

প্রতিষ্ঠানটির প্রধান শিক্ষক মোঃ জাইদুল ইসলাম বলেন, বর্তমান ৬ষ্ট শ্রেণিতে ১১৩ জন, ৭ম শ্রেণিতে ৭৮ জন, ৮ম শ্রেণিতে ৮৩, ৯ম শ্রেণিতে ৪৯ জন, ও ১০ম শ্রেণিতে ২২ জন ৫টি ক্লাসে মোট ৩৪৫জন শিক্ষার্থী আছে। প্রতিষ্ঠানটির শুধুমাত্র টিনসেট মেঝেকাঁচা ২টি ঘর রয়েছে। প্রতিষ্ঠানে টিউবওয়েল, টয়লেট, কমনরুমসহ প্রয়োাজনীয় শ্রেণি কক্ষ না থাকায় শিক্ষার্থীদের সফলভাবে পাঠদান করানো সম্ভব হচ্ছে না। বাইটকামারী পাকা রাস্তা সংলগ্ন বাইটকামারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়টি অবস্থিত হওয়া অত্র এলাকার ৫টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আমাদের স্কুলে ভর্তি হতে এসে খোলা আকাশের নিচে পাঠদান দেখে শিক্ষার্থীরা ফেরৎ যায়।

বাইটকামারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়টি জানুয়ারী ২০০৫ইং সালে স্থাপিত হয়ে ২০১২ইং সালে পাঠদানের চুড়ান্ত অনুমোদন হয়। ২০১৩ইং সালে একাডেমিক স্বীকৃত হয়ে পরবতিতে স্কুলের রেজাল্ট ও পরিচালনা কমিটির চেষ্টার ফলে মাধ্যমিক পর্যায়ে পাঠদান অনুমোদন পেয়ে বিদ্যালয়টি সফলভাবে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করে আছে। অত্র প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীরা ২০১৩, ২০১৪ ও ২০১৫ ইং সালে জেএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে জিপিএ-৫ সহ সাফল্যের সাথে শতভাগ পাশ করে আসছে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার রেজাউল কবীর বলেন, প্রতিষ্ঠানটির পাশের হার ও শিক্ষামান ভালো। ক্লাসরুমসহ প্রয়োজনীয় সমস্যার সমাধান করলে বাইটকামারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়টি রৌমারী উপজেলার ভালো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে গন্য হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার শঙ্কর কুমার বিশ^াস বলেন, বাইটকামারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হওয়ায় অত্র অঞ্চলের ছাত্র-ছাত্রীরা শিক্ষার সুযোগ পাবে। প্রতিষ্ঠানটি সরেজমিনে পরিদর্শন করে সমস্যার সমাধানকল্পে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

রৌমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ মজিবুর রহমান বঙ্গবাসী বলেন, উপজেলা সদর থেকে ৮ কিলোমিটার দূরে পাকা রাস্তার সংলগ্ন বাইটকামারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়টি অবস্থিত হওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা বেশি। উপজেলা পরিষদের বরাদ্দ সিমিত হওয়ায় সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সমস্যা দূর করা সম্ভব হয় না। সরেজমিনে পরির্দশন করে সমস্যার সমাধানকল্পে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।






মন্তব্য চালু নেই