মেইন ম্যেনু

কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতাল থেকে শিশু চুরি

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতাল থেকে ১ দিনের শিশু সন্তান চুরির ঘটনা ঘটেছে।

শুক্রবার রাত ৮ টার দিকে হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ড থেকে বোরখা পড়া অজ্ঞাত এক মহিলা শিশু বাচ্চাটিকে চুরি করে নিয়ে যায়।

সদর হাসপাতাল সুত্র জানায়, নাগেশ্বরী উপজেলার কচাকাটা ইউনিয়নের নারায়নপুর গ্রামের ইসাহাক আলীর স্ত্রী মমতা বেগম বৃহস্পতিবার নিজ বাড়িতে একটি পুত্র সন্তানের জন্ম দেয়। মা ও সন্তান দু’জনেই অসুস্থ হলে মাকে বাড়িতে রেখে শিশুটিকে নিয়ে তার নানা বাছদ্দি ও নানী অহিজন শুক্রবার দুপুরে সদর হাসপাতালে ভর্তি করায়। পরে রাত ৮টার দিকে শিশুটির নানা বাছদ্দি বাইরের দোকান থেকে ঔষধ আনতে যায়। এসময় শিশুটিকে হাসপাতালের বিছানায় রেখে নানী অহিজন বাতরুমে যায়। এই সুযোগে হাসপাতালের রুমে বসে থাকা বোরখা পড়া অজ্ঞাত এক মহিলা কৌশলে বাচ্চাটি নিয়ে পালিয়ে যায়।

শিশুটির নানা বাছদ্দি জানান, হাসপাতাল থেকে আমার নাতি চুরি হয়েছে। আমি আমার নাতিকে ফেরত চাই।

এ ব্যাপারে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে ব্যবস্থাপক ডাঃ অজয় কুমার রায় বলেন, হাসপাতাল থেকে শিশু চুরির ঘটনাটি থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে। পুলিশ এসে তদন্ত করে গেছে। এছাড়াও হাসপাতালে শিশু চুরির ঘটনায় ৩ সদস্যের কমিটি করে ৩ দিনের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।

কুড়িগ্রাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ জমির উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, শিশু চুরির ঘটনাটি জেনেছি। আমরা চুরি যাওয়া শিশুটিকে উদ্ধারের চেষ্টা করছি।






মন্তব্য চালু নেই