মেইন ম্যেনু

কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী ঢাকায়

তিন দিনের সরকারি সফরে ঢাকা পৌঁছেছেন কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী শেখ জাবের আল-মুবারক আল-হামাদ আল-সাবাহ। তাকে বিমানবন্দরে অভ্যর্থনা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার বিকেলে সাড়ে ৫টায় একটি বিশেষ বিমানে হজরত শাহজালাল (রা.) আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে পৌঁছান মধ্যপ্রাচ্যের তেলসমৃদ্ধ দেশটির প্রধানমন্ত্রী। সেখানে তাকে লাল গালিচা সংবর্ধনা জানানো হয়েছে।

পরে গার্ড অব অনার প্রদানের মাধ্যমে সম্মানিত করা হয় কুয়েতের প্রধানমন্ত্রীকে। তিন বাহিনীর চৌকস দল এই গার্ড অব অনার প্রদান করে। পরে কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী তাদের কুচকাওয়াজ পরিদর্শন করেন।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে মন্ত্রিসভার সদস্যরা, তিন বাহিনীর প্রধান ও কূটনীতিক কোরের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। পরে কুয়েত প্রধানমন্ত্রী হোটেল লা ম্যারিডিয়ানে যান। সফরকালে বিমানবন্দরের নিকর্টবর্তী এ হোটেলে অবস্থান করবেন তিনি।

এ সফরে দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক শেষে কুয়েতের সঙ্গে বিনিয়োগ বৃদ্ধি ও সুরক্ষা, সামরিক সহযোগিতা এবং কূটনৈতিক ও অফিসিয়াল পাসপোর্টধারীদের ভিসা সহজীকরণ সংক্রান্ত তিনটি চুক্তি স্বাক্ষর হওয়ার কথা রয়েছে। এ ছাড়া একটি সমঝোতা স্মারকও স্বাক্ষর হতে পারে।

বাংলাদেশে তিন দিনের সফর শেষে কুয়েতের প্রধানমন্ত্রীর ৫ মে বিকেলে ঢাকা ছাড়ার কথা রয়েছে।

সফরসূচি অনুযায়ী, বুধবার সকাল ১০টা ৩০ মিনিটে সাভারে জাতীয় স্মৃতি সৌধে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের মধ্য দিয়ে সফরের মূল কার্যক্রম শুরু করবেন কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী শেখ জাবের। জাতীয় স্মৃতি সৌধ থেকে হোটেলে ফিরবেন তিনি।

এরপর বিকেলে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে যাবেন। সেখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক করবেন। এরপরেই দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে অংশ নেবেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী। পরে দ্বিপক্ষীয় চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন বলে জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়। সেখানে তিনি ভিজিটরস বুকে স্বাক্ষর করবেন।

সেখান থেকে কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী যাবেন জাতীয় সংসদে। সংসদের চলতি অধিবেশনের কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে তিনি রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করতে বঙ্গভবনে যাবেন। আর সন্ধ্যায় তার সৌজন্যে হোটেল সোনারগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা ও নৈশ্যভোজের আয়োজনে অংশ নেবেন।

পরদিন ৫ মে সকাল ১০টায় সংসদের প্রধান বিরোধী দলের নেত্রী রওশন এরশাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী। ওই বৈঠক শেষে ধানমন্ডিস্থ ৩২ নম্বর সড়কে অবস্থিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করবেন। এ সময়েও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেখানে কুয়েতের প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানানোর কথা রয়েছে। জাদুঘর পরিদর্শন শেষে কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী শেখ জাবের আল-মুবারক আল-হামাদ আল-সাবাহ ঢাকা ত্যাগের উদ্দেশে হজরত শাহজালাল (রা.) আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে যাবেন। এরপর দুপুর ১২টায় বিশেষ ফ্লাইটে তিনি ঢাকা ছেড়ে যাবেন।

৬৮ সদস্যের কুয়েত প্রধানমন্ত্রীর প্রতিনিধি দলে রয়েছেন দেশটির প্রথম উপ-প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র মন্ত্রী শেখ সাবাহ খালেদ আল-হামাদ আল-সাবাহ, অর্থ ও তেল মন্ত্রী আনাস খালেদ আল-সাবাহ, শিক্ষা মন্ত্রী ড. বদর হামাদ আল-ইসাসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা।

এ ছাড়া কুয়েত চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের একটি ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদলও কুয়েতের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বাংলাদেশ সফর করছেন।






মন্তব্য চালু নেই