মেইন ম্যেনু

‘কোটি টাকার’ সাপ নিয়ে হাতাহাতি, লক্ষ্মীপুরে তোড়পাড়

লক্ষ্মীপুরে কালো ও হলুদ রঙের একটি ডোরাকাটা (হাক্কুনি) সাপ নিয়ে জেলা জুড়ে তোড়পাড় সৃষ্টি হয়েছে। একটি মহল সাপটির মূল্য কোটি টাকা বলে প্রচার করায় স্থানীয় কয়েকজন যুবক নিজেদের মধ্যে বিরোধে জড়িয়ে পড়েন। সাপটি সংরক্ষণ নিয়ে তাদের দু’গ্রুপের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রোববার রাতে লক্ষ্মীপুর পৌর শহরের ১৫ নং ওয়ার্ড বেঁড়ির মাথায় হাজী বাড়ির বাগানে কালো ও হলুদ রঙের একটি ডোরাকাটা সাপ দেখতে পান স্থানীয় লোকজন। সাপটি অনেক দামী ভেবে দিদার, বাবলু ও কাশেমসহ কয়েকজন যুবক সেটি ধরে বস্তায় ভরে কাশেমের ঘরে যত্ন করে রেখে দেয়।

কিন্তু রাতেই বস্তা থেকে সাপটি পালিয়ে যায়। পরে বাবলু ও দিদার কাশেমের কাছে সাপের সন্ধান চাইলে কাশেম বলে সাপটি উধাও হয়ে গেছে। এ নিয়ে একপর্যায়ে তাদের মধ্যে এ নিয়ে হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে। পরে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন তাদের ডেকে বিষয়টির মীমাংসার চেষ্টা করেন।

এদিকে সাপ উধাওয়ের বিষয়টি স্থানীয় লোকজনের মধ্যে জানাজানি হলে এলাকা জুড়ে কৌতুহল সৃষ্টি হয়। অনেকেই মন্তব্য করেন, সাপটি অলৌকিক ছিল, তাই সেটি উধাও হয়ে গেছে। আবার কেউ কেউ ধারণা করছেন, কাশেম সাপটি অন্যত্র সরিয়ে রেখেছে, গোপনে বিক্রি করার জন্য।

এ বিষয়ে ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন বলেন, হাক্কুনি নামের ওই সাপটির কোটি টাকা মূল্য আছে বলে এলাকার যুবকদের মধ্যে বিবাদের সৃষ্টি হয়েছে। তবে উভয় পক্ষকে বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি না করার জন্য সাবধান করে দেয়া হয়েছে।

লক্ষ্মীপুর শহর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (এসআই) নাজিম উদ্দিন বলেন, বিষয়টি নিয়ে কেউ অভিযোগ করেনি। তবে খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে।






মন্তব্য চালু নেই