মেইন ম্যেনু

কোমরভাঙা বিআরটিসিকে বেসরকারি হাতে দেয়ার আহ্বান

আওয়ামী লীগ নেতা স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য হাজি মো. সেলিম বলেছেন, ‘বর্তমানে সরকারি পরিবহন সংস্থা বিআরটিসি একটি কোমরভাঙা পরিবহনে পরিণত হয়েছে। সরকারি পরিবহন ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ভেঙে পড়েছে। বিআরটিসির আনা ৫০টি দ্বিতল বাসের মধ্যে ৪৮টিই অকেজো।’

সোমবার জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব ওর্ডারে বক্তব্য দিতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

‘এছাড়া বিদেশ থেকে কাড়ি কাড়ি টাকা দিয়ে বিআরটিসি যে সব বাস এনেছে তার অধিকাংশই এখন লক্কর-ঝক্করে পরিণত হয়েছে। কেউ দেখার নেই। এমন অবস্থা যে ক্রোরামিন দিয়ে বিআরটিসিকে বাঁচিয়ে রাখা হচ্ছে। এ অবস্থা আর কতো কাল? এখন যা দু-চারটি বাস চলে, যাতে করে ছাত্র-ছাত্রী ও অফিস আদালতের কর্মীরা অতিকষ্টে চলাচল করেন’, বললেন ঢাকার এ সাংসদ।

তিনি বলেন, ‘রাস্তায় এ সংস্থার যে কটি গাড়ি আছে তার অধিকাংশই বর্তমানে অচল হয়ে পড়েছে, সবকটির কোমরভাঙা দশা। সেবার পরিবর্তে এর জন্য রাস্তায় যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। তাই সরকারি পরিবহন বিআরটিসি সম্পূর্ণ ব্যর্থ। বর্তমানে সড়ক পরিবহন সম্পূর্ণরূপে বেসরকারি বাসের উপর নির্ভরশীল।’

বিআরটিসির ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণেই এ অবস্থা বলেও উল্লেখ করেন হাজি সেলিম। তিনি বলেন, ‘এ দুর্নীতি বন্দ হওয়া দরকার। সরকার আর কতো লোকসান করবে?’ এসময় বিআরটিসিকে পাবলিক অর্থাৎ বেসরকারি হাতে দেয়ার আহ্বান জানান হাজি সেলিম।






মন্তব্য চালু নেই