মেইন ম্যেনু

কোরবানিতে বাণিজ্য ২৫ হাজার কোটি টাকা

ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে শুধু উৎসবই নয়, অর্থনীতিও আবর্তিত হয়। প্রতি বছর পশু বেচাকেনায় বিপুল অঙ্কের অর্থ ঘন ঘন হাতবদল হওয়ায় দেশের অর্থনীতি এক বিরাট সুফল বয়ে আনছে। চাঙ্গা হচ্ছে গ্রামীণ অর্থনীতি। এর নানামুখী প্রভাব থাকে বছরজুড়ে।

সরকারি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) তথ্য অনুসারে, এবারের কোরবানির ঈদে ২৫ হাজার কোটি টাকার পশু বেচাকেনা হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। গত বছর ৪০ লাখ ৬১ হাজার গরু কোরবানি হয়েছিল। যার মূল্য ছিল ১৭ হাজার ৫৫ কোটি টাকা। এবার গরু কোরবানি প্রায় ১০ শতাংশ বাড়তে পারে। এ হিসাবে প্রায় ৫০ লাখ গরু কোরবানি হবে। যার আর্থিক মূল্য দাঁড়াবে কম-বেশি ২৪ হাজার কোটি টাকা। এর বাইরে ছাগল এবং অন্যান্য পশু বিক্রি হয় ২ হাজার কোটি টাকা।

এ প্রসঙ্গে বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ড. জায়েদ বখত বলেন, ঈদে মূলত গ্রামীণ অর্থনীতি চাঙ্গা হয়ে উঠে। এটা দেশের অর্থনীতির জন্য খুবই মঙ্গলজনক। গ্রামীণ এলাকায় এসব পশু পালন হয়। ঈদে পশু বিক্রি করে তারা এক সঙ্গে টাকা পায়। এটি সুশম উন্নয়নের পথকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

প্রাণিসম্পদ অধিদফতর সূত্র জানায়, এবার ৫০ লাখের বেশি গরু কোরবানির জন্য প্রস্তত রয়েছে। স্থানীয়ভাবে ৪০ লাখ গরু পালন করা হয়েছে। এর বাইরে বিভিন্ন উৎস থেকে আরো ১১ লাখ গরু বাজারে সরবরাহ করা হবে। এর আর্থিক মূল্য প্রাণিসম্পদ বিভাগ হিসাব না করলেও এসব গরু বিক্রি করে কয়েক হাজার কোটি টাকা পাবেন খামারিরা।

প্রতিটি হাট থেকে নেওয়া তথ্য অনুযায়ী বিবিএস বলছে, গরু কোরবানিতে শীর্ষে রয়েছে রাজধানীবাসী। গরু কেনাকাটার পেছনে ঢাকায় বসবাসরত মানুষের গড়ে ব্যয় হয় দুই থেকে আড়াই হাজার কোটি টাকা। গত বছর ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের অনুমোদিত অর্ধশত হাটে সাড়ে পাঁচ লাখ গরু কেঁনে ঢাকাবাসী। এ জন্য ব্যয় হয় ১৯০০ কোটি টাকা। আবার ছাগল কিংবা অন্য পশু কোরবানির বিবেচনায়ও ঢাকা এগিয়ে। গত বছর দেড় লাখ ছাগল কোরবানি হয়েছে। যার আর্থিক মূল্য ৭৫ কোটি টাকা। অন্যান্য পশু কোরবানি হয়েছে ৩০ হাজার। এগুলো কিনতে ব্যয় হয়েছে ১৫ কোটি টাকা।

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সাবেক সচিব কানিজ ফাতেমা বলেন, ঈদুল আযহায় গরু কোরবানির সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তি রয়েছে। এ জন্য স্থানীয় প্রশাসন ও প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের সহযোগিতায় হাট ধরে আলাদাভাবে প্রকৃত সংখ্যা নির্ণয় করা হয়েছে। তবে এটি মোটামুটি একটি সঠিক তথ্য পাওয়া যাবে।






মন্তব্য চালু নেই