মেইন ম্যেনু

কোলের শিশুকে ধর্ষণ

শরীয়তপুরে ২১ মাস বয়সী এক মেয়ে শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। রবিবার বিকালে শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার ঘড়িষার ইউনিয়নের হালইসার সবুজবাগ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শিশুটিকে ঢাকায় চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত যুবক পালিয়ে গেছেন।

শিশুটির পরিবারের অভিযোগ, মা শিশুটিকে প্রতিবেশী জাকির বেপারীর কোলে দিয়ে ঘরের বাইরে যান। এই সুযোগে জাকির শিশুটিকে ধর্ষণ করেন। শিশুটির কান্নার শব্দ পেয়ে তার মা ছুটে আসলে জাকির পালিয়ে যান। এ সময় তিনি মেয়ের পায়ে রক্ত দেখতে পান। পরে শিশুটিকে স্থানীয় ঘড়িষার বাজারের চিকিৎসক সেলিমের কাছে নেয়া হয়।

প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে শিশুটিকে ঢাকায় পাঠানোর পরামর্শ দেন ওই চিকিৎসক। টাকার অভাবে শিশুটির বাবা ঢাকা না নিয়ে সোমবার বিকালে তার মেয়েকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। শিশুটির প্রসাব বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আজ মঙ্গলবার সকালে শিশুটিকে ঢাকায় নেয়া হয়।

শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক রাজিব শংকর বলেন, ‘শিশুটিকে ভর্তি করার সময় তার যৌনাঙ্গে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।’

শিশুটির বাবা সাদেক খান বলেন, ‘আমার কোলের বাচ্চার সঙ্গে জাকির কীভাবে এ কাজ করলো বুঝতে পারছি না। জাকিরের বাবা এ জন্য মাফ চেয়েছেন এবং চিকিৎসার খরচ দেবেন বলেছেন। আগে আমার মেয়ে সুস্থ হোক, তারপর দেখবো কী করা যায়।’

জাকিরের বাবা আজিজুল বেপারী বলেন, ‘ ঘটনার পর আমার ছেলে আর বাড়িতে আসেনি। সমাজের দশ জন মিলে ওর যে বিচার করবে আমি মেনে নেবো।’

নড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একরাম আলী মিয়া বলেন, ‘থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।’






মন্তব্য চালু নেই