মেইন ম্যেনু

কোহলির শতকে প্রথম দিনটা ভারতের

কোহলির দারুণ এক শতকের উপর ভর করে স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম দিনটা নিজেদের করে নিয়েছে সফরকারী ভারত। কোহলির অপরাজিত ১৪৩ আর ধাওয়ানের ৮৪ রানের উপর ভর করে প্রথম দিন শেষে ৪ উেইকেট হারিয়ে সফরকারীরা ৩০২ রান সংগ্রহ করেছে ভারত।

বৃহস্পতিবার স্যার ভিভিয়ান রিচার্ড স্টেডিয়ামের মন্থর উইকেটে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে স্বাগতিকদের সুশৃঙ্খল বোলিংয়ের সামনে পড়েন সফরকারী দলের ব্যাটসম্যানরা। গতি আর বাড়তি বাউন্সে ভারতের দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানকে স্বস্তি দিচ্ছিলেন না শ্যানন গ্যাব্রিয়েল। অন্য প্রান্তে অধিনায়ক জেসন হোল্ডারের আঁটসাঁট বোলিং সহায়ক ছিল চাপ ধরে রাখার জন্য।

গ্যাব্রিয়েলের বাউন্সারে পরপর চারবার পরাস্ত হলেও কোনোমতে বেঁচে যান শিখর ধাওয়ান। তবে ভাগ্য ততটা সহায়ক ছিল না মুরালি বিজয়ের। ওয়েস্ট ইন্ডিজে আবার ব্যর্থ হয়েছেন এই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। গ্যাব্রিয়েলের লাফিয়ে উঠা বলে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন তিনি। ক্রেইগ ব্রেথওয়েইট তালগোল পাকিয়েও শেষ পর্যন্ত বল তালুবন্দি করেন।

নড়বড়ে শুরুর পর সুবিধা কাজে লাগাতে থাকেন ধাওয়ান। তবে দ্বিতীয় সেশনের প্রথম ওভারেই নিজের উইকেট উপহার দেন চেতেশ্বর পুজারা। বিশুর শর্ট বলে পুল করতে গিয়ে বল তার ব্যাটের কানায় লেগে পয়েন্টে সহজ ক্যাচ উঠে যায়। এবার কোনো ভুল ছাড়াই তালুবন্দি করেন ক্রেইগ ব্রেথওয়েইট। লাঞ্চের আগে শেষ ওভারে আবার আঘাত হানেন গত অক্টোবরের পর প্রথম টেস্ট খেলতে নামা বিশু। এই লেগ স্পিনারের বল সুইপ করতে গিয়ে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েন ধাওয়ান। ৯টি চার আর একটি ছক্কায় ১৪৭ বলে করেন ৮৪ রান করে সাজঘরে ফেরেন এই ব্যাটসম্যান।

দিনের শেষ সেশনে ফিরে যান অজিঙ্কা রাহানে (২২)। বিশুর বলে পুল করতে গিয়ে মিডউইকেটে ড্যারেন ব্রাভোকে সহজ ক্যাচ দেন তিনি। প্রত্যাশার চেয়ে ধীরে আসা বলে রাহানের বাজে শটে ভাঙে কোহলির ৫৭ রানের জুটি। এরপর রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে সঙ্গে নিয়ে ৬৬ রানের জুটি গড়ে তোলেন কোহলি। সঙ্গে তুলে নেন টেস্ট ক্যারিয়ারে তার দ্বাদশ শতক।






মন্তব্য চালু নেই