মেইন ম্যেনু

‘ক্রসফায়ারের রাজনৈতিক উদ্দেশ্য আছে’

সাম্প্রতিক সময়ে সংগঠিত কয়েকটি বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড বা ক্রসফায়ারের নেপথ্যে ‘রাজনৈতিক উদ্দেশ্য’ আছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আসম হান্নান শাহ।

ক্ষমতাসীনরা তাদের ‘অপকর্মের’ সাক্ষীকে নিশ্চিহ্ন করতেই নিজদলের নেতাকর্মীদের ক্রসফায়ারকে হত্যা করছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে মঙ্গলবার বিকেলে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী তৃণমূল দল নামের একটি সংগঠনের জেলা প্রতিনিধি সভা উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

হান্নান শাহ বলেন, ‘ক্রসফায়ারে সোনার ছেলেদের হত্যা করা হচ্ছে। এর পেছনে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য আছে। ভবিষ্যতে যাতে সাক্ষী দিতে না পারে সেজন্য অপকর্মের সাক্ষীদের মেরে ফেলা হচ্ছে।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, আওয়ামী লীগ ভোটে বিশ্বাস করে না। তাদের ওপর বাকশালী প্রেতাত্মা ভর করেছে। তারা জনগণের কাছ থেকে প্রত্যাখ্যাত হবে। সেজন্য অনেক নেতাই তাদের পাসপোর্টে প্রতিবেশী একটি দেশের ভিসা লাগিয়ে রেখেছেন।

এই সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়নি উল্লেখ করে হান্নান শাহ বলেন, তারা জনগণকে ভয় পায়। প্রধানমন্ত্রী নিজেও জনগণকে ভয় পান। শেখ হাসিনা এখন জনগণের ভয়ে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেতু উদ্বোধন করেন। এভাবে আর কতোদিন জনগণ থেকে দূরে থাকবেন সেই প্রশ্ন তোলেন বিএনপির এই নেতা।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি মো. হানিফ ব্যাপারীর সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, তৃণমুল দলের যুগ্ম মহাসচিব মো. শাহজাহান, প্রেসিডিয়াম সদস্য আহসান হাবীব লিংকন প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আকবর হোসেন ভূঁইয়া।






মন্তব্য চালু নেই