মেইন ম্যেনু

ক্রিকেটারদের সঙ্গে প্রেম করে সাড়া ফেলেছেন যে ১০ বলিউড নায়িকা

ক্রিকেটারদের সঙ্গে বলিউড নায়িকাদের প্রেম আজকের কথা নয়। বলিউডের নামজাদা নায়িকা প্রেমে পড়ছেন ততোধিক নামজাদা কোনো ক্রিকেটারের— এমন ঘটনা বারবার ঘটেছে। স্বভাবতই সেই সব প্রেমকাহিনিও যথেষ্ট খ্যাতি অর্জন করেছে। এখানে রইল তেমনই খ্যাতনামা কয়েকটি প্রেমের কথা—

১. শর্মিলা ঠাকুর-মনসুর আলি খান পতৌদি : বলিউড ও ক্রিকেট জগতের প্রেমের সবচেয়ে পরিচিত নিদর্শন তারাই। পতৌদি জাতীয় দলের ক্যাপ্টেন থাকাকালীনই তার সঙ্গে শর্মিলার প্রণয়পর্ব শুরু হয়। দু’জনেরই পরিবারের পক্ষ থেকে প্রাথমিকভাবে কিছু বাধাবিপত্তি থাকলেও শেষ পর্যন্ত দু’জনে বিবাহবন্ধনে বাঁধা পড়েন এবং ২০১১ সালে পতৌদির মৃত্যু পর্যন্ত সুখেই সংসার করেন।

২. নীনা গুপ্তা-ভিভিয়ান রিচার্ডস : ওয়েস্ট ইন্ডিজে নিজের স্ত্রী, সংসার থাকা সত্বেও ভারতে নীনার সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন ভিভ। তাদের সম্পর্ক অবশ্য বিবাহে পরিণতি পায়নি, তবে রিচার্ডসের সন্তানের জননী হন নীনা। সেই সন্তানই আজকের নামকরা ফ্যাশান ডিজাইনার মাসাবা।

৩. কিম শর্মা-যুবরাজ সিংহ : বলিউডের মডেল-অভিনেত্রী কিমের সঙ্গে যুবরাজের ঘনিষ্ঠ মেলামেশা একসময়ে বেশ আলোচনার বিষয় হয়ে উঠেছিল। প্রায়শই একসঙ্গে দু’জনকে দেখা যেত বিভিন্ন জায়গায়। তবে এই সম্পর্ক অবশ্য বেশিদিন স্থায়ী হয়নি।

৪. ঈশা সর্বাণী-জহির খান : যে সময় তাদের প্রেমের শুরু, তখন ঈশা আর জহির দু’জনেই নিজ নিজ ক্ষেত্রে উঠতি তারকা। সেই সময় বেশ সাড়া ফেলেছিল তাদের সম্পর্ক। পরে অবশ্য নিজেদের পেশার খাতিরে তারা আলাদা পথ বেছে নেন নিজেরাই। তার আবার বছর কয়েক পরে আলোচনা শুরু হয় যে, তারা নাকি বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হতে চলেছেন। কিন্তু সেই বিয়েও শেষ পর্যন্ত আর হয়নি।

৫. অঞ্জু মহেন্দু-গারফিল্ড সোবার্স : অঞ্জু যখন উঠতি নায়িকা তখনই সোবার্সের সঙ্গে তার আলাপ পরিচয় হয়। দু’জনেই প্রেমে পড়েন পরস্পরের। কিন্তু অঞ্জুর বাবা-মার আপত্তি ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান জামাইকে মেনে নিতে। অঞ্জু তাই সোবার্সের কাছ থেকে দূরে সরে আসার সিদ্ধান্ত নেন।

৬. জিনত আমন-ইমরান খান : জিনতের সঙ্গে ইমরানের প্রেম একসময় যথেষ্ট সাড়া ফেলেছিল। তবে পাকিস্তান ও ভারতের রাজনৈতিক দূরত্বই নাকি তাদের মিলনের পথে বাধা হয়ে দাঁড়ায়। পরে গুজব রটে যে, ইমরান নাকি বেনজির ভুট্টোর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছেন, আর এদিকে জিনতের সঙ্গে অভিনেতা সঞ্জয় খানের প্রেম সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা শুরু হয়।

৭. রীনা রায়-মহসিন খান : জিনত-ইমরান যা পারেননি, তা-ই করে দেখান রীনা-মহসিন। রাষ্ট্রনৈতিক সীমারেখা অতিক্রম করে পাকিস্তানের ক্রিকেটার মহসিনকে ভালবেসে বিয়ে করেন রীনা। অভিনয় ছেড়ে দিয়ে সংসারে মন দেন রীনা। মহসিনও ভারতে এসে বলিউডে ছোটখাটো অভিনয়ের চেষ্টা শুরু করেন। যদিও শেষ পর্যন্ত তাদের বিয়ে বেশিদিন টিকে নি। ডিভোর্স হয়ে যায় দু’জনের।

৮. সংগীতা বিজলানি-মোহাম্মদ আজহারউদ্দিন : সংগীতার সঙ্গে আজহারের সম্পর্ক যখন শুরু হয়, তখন দুই সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে সংসার করছেন আজহার। সংগীতার প্রেমে স্ত্রীকে ডিভোর্স দেন আজহার। বিয়ে করেন সংগীতাকে। ১৪ বছর একসঙ্গে সংসার করার পরে ২০১০-এ সংগীতার সঙ্গেও ডিভোর্স হয়ে যায় আজহারের।

৯. গীতা বসরা-হরভাজন সিংহ : এই দু’জনের সম্পর্ক নিয়ে যখন আলোচনা চলছিল, তখন অনেকদিন পর্যন্ত তারা তাদের সম্পর্ককে ‘নিছক বন্ধুত্ব’ বলে দাবি করে এসেছেন। কিন্তু তাদের সম্পর্কের সত্যতা প্রকাশ পেয়ে যায় যখন তারা বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। এখন তো শোনা যাচ্ছে, বাবা-মাও হতে চলেছেন দু’জনে।

১০. অানুশকা শর্মা-বিরাট কোহলি : তাদের সম্পর্ক নিয়ে আর কি নতুন করে বলার আছে কিছু? তবে বর্তমানে তাদের সম্পর্কের অবস্থাটা ঠিক কী, তা তারাই সবচেয়ে ভাল বলতে পারবেন।-এবেলা






মন্তব্য চালু নেই