মেইন ম্যেনু

ক্রিকেট ফেলে তরমুজ সাবাড়!

ধরুণ, আপনি গেছেন মিরপুর স্টেডিয়ামে ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের কোনো ক্রিকেট ম্যাচ উপভোগ করতে। এ সময় হাতের কাছে মুফতে পেলেন আস্ত একখানা তরমুজ। আপনি কি তখন খেলা রেখে তরমুজ খেতে শুরু করবেন? আমি জানি আপনি কখনো তা করবেন না। কোনো বাংলাদেশি ক্রিকেট ভক্তের পক্ষেই তা সম্ভব নয়। কিন্তু শনিবার অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন মাঠে এমন দৃশ্যই দেখা গেছে। যা দেখে মেলবোর্নের ক্রিকেট মাঠের ধারাভাষ্যকাররা পর্যন্ত তাজ্জব বনে গেছেন।

সেদিন খেলা দেখা ফেলে আস্ত একখানা তরমুজ খেতে শুরু করেছিল অস্ট্রেলিয় কিশোর মিটচেল স্কিবেচির। এ ঘটনার পর থেকে সে ‘তরমুজ বালক’ উপাধি পেয়েছে। তার তরমুজ খাওয়ার এই ভিডিও চিত্র অস্ট্রেলিয়ার সামাজিক মাধ্যমে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। এতে দেখা যায়, খোসাসহ আস্ত একখানা তরমুজ গোগ্রাসে গিলছে মিটচেল। চারপাশের কোনোকিছুতেই আর হুঁস নেই। এ নিয়ে বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সে জানায়,‘ খোসা শুদ্ধ তরমুজ খাওয়া আসলেই একটি কঠিন কাজ। কিন্তু আমার লক্ষ্য ছিল যেভাবেই হউক এটা শেষ করতে হবে। তাই আমি সমানে খেয়ে গেছি।’

এই ছেলে দুই বছর বয়স থেকেই নাকি তরমুজ খাওয়া শুরু করেছে। এই ফলটি তার এতই প্রিয় যে দেখলে আর রক্ষা নেই। স্থান কাল পাত্র ভুলে ঝাঁপিয়ে পড়ে। তাই তো প্রিয় দলের খেলা ফেলে আগে চেটে পুটে গোটা তরমুজ শেষ করেছে। যাই বলুন, এই তরমুজের কল্যাণেই না সে আজ এতটা বিখ্যাত, নইলে মিটচেল কে আর কে চিনত বলুন! যদিও এ নিয়ে তার সরল স্বীকারোক্তি,‘আমি কিন্তু আসলে কোনো হিরো নই। একজন স্বাভাবিক শিশু মাত্র। আর তরমুজ বরাবরই আমার প্রিয় ফল।’






মন্তব্য চালু নেই