মেইন ম্যেনু

ক্রোয়েশিয়ায় পাড়ি জমাচ্ছে শরণার্থীরা

সার্বিয়ার সঙ্গে হাঙ্গেরির সীমান্ত বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোতে পৌঁছানোর জন্য নতুন পথ খুঁজে নিয়েছে শরণার্থীরা। শরণার্থীদের প্রথম দলটি বুধবার ক্রোয়েশিয়ায় পৌঁছেছে বলে বিবিসি জানিয়েছে।

মঙ্গলবার সার্বিয়া থেকে বাসে করে তারা যাত্রা শুরু করে। তারা খোলা আকাশের নিচে রাত কাটায়। পরেরদিন বুধবার শরণার্থীদের প্রথম দলটি ক্রোয়েশিয়ার সিদে শহরে গিয়ে পৌঁছায়। এসব শরণার্থীদের অধিকাংশই জার্মানি যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন।

তবে এখনও হাঙ্গেরি ও সার্বিয়া সীমান্ত সংলগ্ন এলাকাগুলোতে শত শত শরণার্থী প্রতীক্ষার প্রহর গুনছেন। তারা অস্থায়ী তাঁবুতে রাত কাটিয়েছেন।

সোমবার রাতে অভিবাসন বিরোধী একটি নতুন আইন জারি করেছে হাঙ্গেরি। এই আইনের ফলে কোনো শরণার্থীকে সে দেশে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না।

এদিকে সীমান্তের কাঁটাতারের বেড়ার ক্ষতি করা ও অবৈধভাবে হাঙ্গেরিতে ঢোকার অভিযোগে ৩৬৭ জন অভিবাসনপ্রত্যাশীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। হাঙ্গেরির এই নতুন আইনের সমালোচনা করে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছে, শরণার্থী সঙ্কটে ইউরোপর সহায়তাকারী মনোভাবকে অগ্রাহ্য করে হাঙ্গেরি তাদের কুৎসিত চেহারা প্রকাশ করেছে।






মন্তব্য চালু নেই