মেইন ম্যেনু

ক্লাবে হামলায় আইএস সম্পৃক্ততার প্রমাণ পায়নি যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার অরল্যান্ডোতে সমকামীদের নৈশক্লাবে চালানো হামলাটি জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) নির্দেশনা অনুযায়ী হয়েছে তার স্পষ্ট কোনো প্রমাণ এখনো যুক্তরাষ্ট্র পায়নি; যদিও জঙ্গি সংগঠনটি এ হামলার দায় নিয়েছে।

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন, অরল্যান্ডোর ওই বন্দুকধারী যে আইএসের নির্দেশনা অনুযায়ী হামলা চালিয়েছে তার স্পষ্ট কোনো প্রমাণ নেই।

তবে হামলাটিকে সন্ত্রাসী হামলা হিসেবে আমলে নিয়েই তদন্ত এগিয়ে যাচ্ছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এফবিআই পরিচালক জেমস কমে বলেছেন, ইন্টারনেটের মাধ্যমে মৌলবাদের দিকে ঝুঁকে পড়েছিলেন ওমর মতিন নামে ওই হামলাকারী।

আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের মনোনয়ন প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, বেশ কিছু দেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসন বন্ধ করবেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রে মুসলিমদের প্রবেশে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথাও নতুন করে আবার বলেছেন তিনি।

হামলার আগে মতিন আইএসের প্রতি আনুগত্য স্বীকার করেছিলেন বলে যুক্তরাষ্ট্র জানালেও আইএসের সঙ্গে তার সরাসরি সম্পৃক্ততার বিষয়টি এখনো পরিষ্কার হয়নি।

প্রেসিডেন্ট ওবামা এ হামলার জন্য দেশে বেড়ে ওঠা চরমপন্থিদের দায়ী করেছেন। এ ধরনের হামলার জন্য যুক্তরাষ্ট্র আগে থেকে সতর্ক ছিল বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি।

পুলিশের গুলিতে হামলাকারী মতিন নিহত হলে শেষ হয় যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে ভয়াবহতম বন্দুক হামলার ঘটনাটি। এ ঘটনায় ৫৩ জন আহতও হয়েছেন।

চিকিৎসাধীন কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর বলে জানিয়েছে অরল্যান্ডো রেজিওনাল মেডিকেল সেন্টার।






মন্তব্য চালু নেই