মেইন ম্যেনু

ক্ষমতাসীন জোটকেও আমন্ত্রণ জানাচ্ছে বিএনপি

আগামী ১৯ মার্চ অনুষ্ঠেয় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিলে আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি (জাপা) ও জামায়াতসহ দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণপত্র পাঠানো শুরু করেছে দলটি।

রোববার থেকে দলের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা এ আমন্ত্রণপত্র পৌঁছানোর কার্যক্রম শুরু করেছে।

কাউন্সিল সফলের লক্ষ্যে গঠিত দপ্তর ও যোগযোগ উপ-কমিটির আহ্বায়ক দলের যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদের তত্ত্বাবধানে আমন্ত্রণপত্র বিতরণের এ কাজ চলছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এমন তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, কাউন্সিলে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ ও মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন ও সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আব্দুর রব ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক রতন, জাতীয় পার্টি (জেপি) চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জু ও মহাসচিব শেখ শহিদুল ইসলাম, বিকল্পধারা বাংলাদেশের সভাপতি অধ্যাপক ডা. একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী ও মহাসচিব মেজর (অব.) আব্দুল মান্নান, কৃষক-শ্রমিক-জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীরউত্তম ও সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান তালকুদার বীরপ্রতীক, গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টুসহ বিভিন্ন দলের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে আমন্ত্রণ জানাচ্ছে বিএনপি।

বিএনপির দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা আগামী দুই-একদিনের মধ্যে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণপত্রটি তার ধানমন্ডিস্থ রাজনৈতিক কার্যালয়ে পৌঁছে দিতে পারেন বলে সূত্র জানায়।

এদিকে, জামায়াতে ইসলামীকে নিয়ে নানা আলোচনা-সমালোচনার মধ্যেই ২০ দলীয় জোটের প্রভাবশালী এই শরিককেও আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে বলে জানা গেছে।

এছাড়া শরিক এলডিপির সভাপতি কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীরবিক্রম; জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীক, বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গাণিসহ জোটের দলগুলোর সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকদের আমন্ত্রণ জানাচ্ছে বিএনপি।

অতি সম্প্রতি সরকারের প্রভাবশালী শরিক জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) ভেঙে যাওয়ায় দলটির কোন অংশকে কাউন্সিলে আমন্ত্রণ জানানো হবে অথবা আদৌ আমন্ত্রণ জানানো হবে কিনা, সে ব্যাপারে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলে সূত্র জানায়।

আগামী ১৯ মার্চ রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে অনুষ্ঠেয় বিএনপির জাতীয় সম্মেলন ও কাউন্সিলের উদ্বোধন ও সভাপতিত্ব করবেন দলটির নবনির্বাচিত চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

গত ১০ মার্চ নয়াপল্টনের একটি রেস্টুরেন্টে আনুষ্ঠানিকভাবে বিএনপির কাউন্সিলের লোগো উন্মোচন করা হয়। লোগোতে আছে, মুক্তিযুদ্ধের প্রতীক জাতীয় স্মৃতিসৌধ পাশে লাল-সবুজের পতাকা এবং বিএনপির নির্বাচনী প্রতীক ধানের শীষ। কাউন্সিলের বার্তা প্রচারে পরদিন থেকে মাঠে নেমেছে দলটি। কাউন্সিল উপলক্ষে ব্যাপক প্রচারণার অংশ হিসেবে সামাজিক মাধ্যম ‘ফেইসবুক’ও ব্যবহার করছে বিএনপি।

এদিকে, কাউন্সিল সফলে ইতোমধ্যে দলটির পক্ষ থেকে ফেইসবুক একাউন্ট খোলা হয়েছে। ১৯ মার্চের কাউন্সিলের সর্বশেষ তথ্য এ ফেইসবুকে পাওয়া যাচ্ছে। নতুন ফেইসবুক একাউন্ট হচ্ছে – https:// facebook.com/bnpcouncil বিএনপির ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিলের স্লোগান হচ্ছে- ‘দুর্নীতি দুঃশাসন হবেই শেষ-গণতন্ত্রের বাংলাদেশ।’






মন্তব্য চালু নেই