মেইন ম্যেনু

ক্ষমা চাইলেন সেই ফটো সাংবাদিক

শরণার্থীদের লাঞ্ছিত করার ঘটনায় ক্ষমা চেয়েছেন হ্যাঙ্গেরির সেই আলোচিত নারী ফটো সাংবাদিক। তিনি বলেছেন, তিনি আসলে বর্ণবাদী নন এবং ভুল করেই তিনি এরকম কাজ করেছেন।

পেট্রা লাসজোল নামের ওই সাংবাদিক এক বিবৃতিতে বলেছেন,‘ঘটনার জন্য আমি অনুতপ্ত। আসলে তখন তাড়াহুড়োয় আমার মাথা ঠিক ছিল না। কিন্তু ঘটনাটির ভিডিও দেখে আমি শিউরে ওঠেছি। এজন্য বার বার দেখেছি। আমার মনে হচ্ছিল, ভিডিওর ওই মেয়েটি যেন আমি নই- অন্য কেউ। একজন মা হিসেবে ওই ঘটনার জন্য আমি দুঃখিত।’

এর আগে শরণার্থীদের লাঞ্ছিত করার অপরাধে তাকে বরখাস্ত করেছিল হ্যাঙ্গেরির টিভি চ্যানেলে এনওয়ানটিভি।

গত মঙ্গলবার পেট্রা লাসজলো শরণার্থীদের ছবি তুলতে ছুটে গিয়েছিলেন দেশের দক্ষিণাঞ্চলীয় রোসজকে নামক এলাকায়। সার্বিয়ার সীমান্তবর্তী ওই অঞ্চলটি দিয়েই হ্যাঙ্গেরিতে প্রবেশ করে থাকে শরণার্থীরা। সেখানে অবৈধভাবে প্রবেশকারী হাজার খানেক শরণার্থীদের ঘিরে রেখেছিল পুলিশ। পুলিশি বেষ্টনি থেকে পালিয়ে আসেন তাদেরই কয়েকজন। ছুটে বেরিয়ে আসার সময় শিশু কোলে এক পুরুষকে সজোরে ধাক্কা মারেন পেট্রা। এতে ওই ব্যক্তির কোল থেকে ছিটকে পড়ে শিশুটি। মাটিতে পড়ে যান শিশুটির বাবাও। এখানেই শেষ নয়। পরে ওই ফটোসাংবাদিক আরো এক শরণার্থী শিশুকে লাথি দিয়ে মাটিতে ফেলে দেন।






মন্তব্য চালু নেই