মেইন ম্যেনু

‘খবরের কাগজ খুললেই রক্ত আর রক্ত’

‘প্রতিদিনই মানুষকে নির্মমভাবে হত্যা করা যাচ্ছে। দুষ্কৃতিকারীদের হামলায় স্বাধীন দেশের মাটিতে প্রতিদিনই মানুষের রক্ত ঝরছে, মানুষ যত্রতত্র খুন-গুম হচ্ছে। খবরের কাগজ খুললেই রক্ত আর রক্ত। দেশের সার্বিক অবস্থা ভালো না। চারদিকে রক্ত রক্ত লাগে। এমন পরিস্থিতিতে মানুষ নিরাপত্তা চায়।’

মঙ্গলবার (১৪ জুন) সন্ধ্যায় রাজধানীর কাকরাইলস্থ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশনে জাতীয় পার্টি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আয়োজিত ইফতার পার্টিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাপা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এসব কথা বলেন।

দেশের নিরাপত্তার জন্য ভারতের কাছে সাহায্য চাওয়াকে লজ্জার বলে মন্তব্য করে এরশাদ বলেন, ‘স্বাধীন দেশের নাগরিকদের ভারতের কাছে সাহায্য চাওয়া লজ্জার।’

এরশাদ আরো বলেন, ‘এভাবে দেশ চলতে পারে না। জাতীয় পার্টির শাসনামলে সাধারণ মানুষের রক্ত ঝরে নাই। মিডিয়া আজ জাপার পক্ষে লেখছে। কারণ সবাই বুঝতে পারছে এ নৈরাজ্যের হাত থেকে দেশকে বাচাঁতে হলে জাতীয় পার্টির বিকল্প নাই। জাপা ছাড়া জনগণকে কেউ নিরাপত্তা দিতে পারবে না। এই পরিস্থিতি থেকে একমাত্র জাতীয় পার্টিই পারে দেশকে রক্ষা করতে। দেশের এই অবস্থায় আমাদের দায়িত্ব নিতে হবে। আমরা দায়িত্ব না নিলে আল্লাহ আমাদের ওপর নারাজ হবেন।’

তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি আক্ষেপ প্রকাশ করে বলেন, ‘সদ্য সমাপ্ত ইউপি নির্বাচনে জাতীয় পার্টির কতজন প্রার্থী জয়লাভ করেছো তা তোমরা বলতে পারবে না।’

দলীয় নেতাকর্মীদের হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে এরশাদ বলেন, ‘এবার নতুন কমিটি করতে যাচ্ছি। যারা পার্টির কোনো খোঁজখবর রাখো না, দলকে নিয়ে কোনো চিন্তা-ভাবনা করো না তাদেরকে আসন্ন কমিটিতে রাখা হবে না।’

দেশের বর্তমান পরিস্থিতিকে ভয়াবহ উল্লেখ করে জাতীয় পার্টির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সঙ্গে আলোচনায় বসার আহ্বান জানান।

বাবলার সভাপতিত্বে ইফতার পার্টিতে আরো উপস্থিত ছিলেন- জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদের, মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য আলহাজ্ব সাইদুর রহমান টেপা, নুর-ই-হাসনা লিলি চৌধুরী এমপি, এস এম ফয়সল চিশতী, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক জহিরুল আলম রুবেল ও সাংগঠনিক সম্পাদক সুজন দে প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই