মেইন ম্যেনু

খলনায়ক ম্যারাডোনাই এখন এলিজাবেথের প্রিয়

১৯৮৬ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের জালে হাত দিয়ে বল ঢোকানোর পর থেকেই ইংলিশদের খলনায়কে পরিণত হন ডিয়েগো ম্যারাডোনা। সেই ম্যাচের ২৯ বছর পরও সেই ঘটনা ভুলেননি ইংলিশ ফুটবলের ভক্ত-অনুরাগীরা।

তবে এই ম্যারাডোনাকেই হঠাৎ করে একটি বড় দায়িত্ব দিলেন রানী এলিজাবেথ। ল্যাটিন আমেরিকায় গরিব শিশুদের দেখাশোনার জন্য যে সংগঠন রয়েছে রানী এলিজাবেথের, সেই সংস্থার পক্ষ থেকে ম্যারাডোনাকে ল্যাটিন আমেরিকার ডিরেক্টরের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। আর এমন দায়িত্ব পেয়ে ম্যারাডোনা দারুণ খুশি।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘সামনেই আমার জন্মদিন (৩০ অক্টোবর)। রানী এলিজাবেথ এবং ব্রিটিশ পার্লামেন্টের সবাইকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। হ্যাঁ,আমি আপনাদের সংস্থার ল্যাটিন অ্যামেরিকার শাখার দায়িত্ব গ্রহণ করছি। অনেক ভেবেচিন্তেই, নিশ্চয় আপনারা এই দায়িত্ব আমায় দিয়েছেন।

এটাই সঠিক বিচার। এতদিন তো এই সম্মানের অপেক্ষায় ছিলাম। ল্যাটিন আমেরিকার ছোট ছোট শিশুরা আমার ছায়ায় ভালই থাকবে। সত্যি বলতে কী এই দায়িত্ব পেয়ে আমি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।’

এসময় ম্যারাডোনা আরও বলেন, ‘আমি আপাদমস্তক একজন সৎ লোক। আমার ধারেকাছে কোনও দুর্নীতিপরায়ণ লোক ঘেঁষতে পারে না। আমরা সবাই মিলে বাচ্চাদের জীবন ভরিয়ে দেব হাসি-খুশিতে। ওটাই হবে আমাদের পুরস্কার।

এখনই বলে দিতে পারি এই সংস্থা দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেবে না৷ আবার আমি ব্রিটিশ পার্লামেন্টের সব সদস্য এবং রানীকে জড়িয়ে ধরে নিজের হৃদয়ের উত্তাপ পৌঁছে দিতে চাই।’






মন্তব্য চালু নেই