মেইন ম্যেনু

খাবার ছাড়াই ৩৮২ দিন বাঁচতে পারে মানুষ!

১৯৬৫ সালের স্কটল্যান্ড। স্টাউট স্কট নামের ২৭ বছরের এক যুবক অদ্ভুত কারণে হাসপাতালে গেলেন। ২০৭ কেজি ওজনের শরীরের মেদ ঝরাতে ডায়েট করতে চান তিনি। যেনতেন ডায়েট নয়, একেবারেই খাবার ছেড়ে দেয়ার ইচ্ছা তার। আর এই পুরো সময়টাতে তার শরীরের ওপর নজর রাখতে ডাক্তারদের কাছে আবেদন জানান তিনি।

ধরা হয় একজন স্বাভাবিক মানুষ পানি ছাড়া ৭২ ঘণ্টা আর খাবার ছাড়া ২১ দিন পর্যন্ত বাঁচতে পারেন। অবশ্য তার ক্ষেত্রে প্রথমে ধারণা করা হয়েছিল কোনভাবেই এক মাস না খেয়ে থাকতে পারবেন না তিনি। কিন্তু সবাইকে অবাক করে দিব্যি চলতে থাকে তার ক্র্যাশ ডায়েট। এক মাস দুই মাস নয় টানা ৩৮২ দিন ধরে চলে তার এই উপোষ।

শরীরের মেটাবলিজম ঠিক রাখতে এই সময়টাতে তিনি শুধু প্রয়োজনীয় ভিটামিনের পিল খান। এর ফলও হয়েছিল আশ্চর্যজনক। ১২৭ কেজি ওজন কমে যায় তার। ডাক্তারদের তথ্য মতে স্বাভাবিক খাবারে ফেরার পর পাঁচ বছর পর্যন্ত এই ওজন ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছিলেন তিনি।

আজকের দিনে স্বাভাবিকভাবেই কোন ডায়েটেশিয়ানই এমন ক্র্যাশ ডায়েটের পরামর্শ দিবেন না। তবে আমাদের নিজেদের শরীরকে বুঝতে সহায়তা করেছে এই ঘটনা। কি পরিমাণ শক্তি ফ্যাট হিসেবে জমা থাকে? স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদে জীবন রক্ষার জন্য কোন পুষ্টি উপাদানগুলো প্রয়োজন? এমন অনেকগুলো প্রশ্নের উত্তর পাওয়া গিয়েছিল তার এই ক্র্যাশ ডায়েটে।






মন্তব্য চালু নেই