মেইন ম্যেনু

খালেদার ফেরা না ফেরা

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার লন্ডন সফর নিয়ে বারবার তারিখ পরিবর্তন হয়েছে। দেশে ফেরা নিয়েও একই অবস্থা। লন্ডন সফর অনানুষ্ঠানিকভাবে হলেও রাজনীতিতে এর গুরুত্ব অনেক। যদিও এই সফরের কথা শোনার পর থেকে ক্ষমতাসীনরা কটাক্ষ করে চলেছে। এখন বিএনপি প্রধানের দেশে ফেরা নিয়ে এক ধরনের ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। নেতারা জানেন না কবে ফিরবেন চেয়ারপারসন।

গত ১৫ সেপ্টেম্বর লন্ডনের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়েন বেগম খালেদা জিয়া। এর মধ্যে দেশে দুই বিদেশি নাগরিক হত্যার ঘটনা ঘটেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ ঘটনায় বিএনপি নেত্রীকে সরাসরি দায়ী করেছেন।

এদিকে গুঞ্জন রয়েছে, বেগম খালেদা জিয়া একাত্তরের মানবতা বিরোধী অপরাধে ফাঁসির দণ্ডাদেশ প্রাপ্ত দুই আসামি জামায়াত নেতা আলী আহসান মুজাহিদ ও বিএনপি নেতা সালাউদ্দীন কাদের চৌধুরীর রায় পরিস্থিতি বিবেচনা করে দেশে ফিরবেন। আবার কিছু মহল থেকে বলা হচ্ছে, ফরেন সিগন্যাল না নিয়ে খালেদা জিয়া দেশে ফিরছেন না।

বেগম খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে দেশে ফেরার তারিখ সম্পর্কিত কিছু না বলা হলেও একেক সময়ে একেক ধরনের তথ্য আসছে। এ কারণে দলীয় নেতাকর্মীরা এক ধরনের অস্বস্তিতে ভুগছে। তবে তাদের প্রত্যাশা, চলতি মাসেই দেশে ফিরে দল পুনর্গঠন প্রক্রিয়া চূড়ান্ত করবেন তিনি।

খালেদা জিয়ার দেশে ফেরা সম্পর্কে বিএনপির সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আ স ম হান্নান শাহ বলেন, ‘আমরা কোনো সুনির্দিষ্ট তারিখ পাই নাই, কবে উনি আসবেন। তবে আশা করছি এ মাসের মধ্যেই তিনি ফিরে আসবেন।’

স্থায়ী কমিটির অপর সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে যা শুনছিলাম সেটাতো আসার ডেট ১/২টা পর হয়ে গেছে। যদি আরেকটা চোখের চিকিৎসা করান তাহলে আসতো আরো পনের দিনের মতো সময় লাগে। এখন পর্যন্ত আমি কনফার্ম না উনি কবে আসবেন।’ বাংলামেইল






মন্তব্য চালু নেই