মেইন ম্যেনু

খালেদা বড় বড় কথা বলেন, কিন্তু তিনি দুর্গতদের জন্য এক সটাক ত্রান দেননি : মায়া

মোঃ ফজলে আলম, ভোলা  প্রতিনিধি : ভোলার তজুমদ্দিনে দুর্যোগ এলাকায় ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধূরী মায়া বলেছেন, ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থদের সহযোগীতায় সরকারের পাশাপাশি বিত্তবানদের এগিয়ে আসতে হবে। অথচ রাজনৈতি দলের নেতা খালেদা জিয়া কেন্দ্রে থেকে বড় বড় কথা বলেন, তিনি দুর্গতদের জন্য এক সটাক ত্রান দেননি। দেশের প্রতি তার কোন দরদ নেই। দেশের মানুষের জন্য শুধুমাত্র দরত রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। দুর্যোগ কবলিত মানুষকে যাতে ত্রানের জন্য কষ্ট পেতে না হয়, সেজন্য তিনি মনিটরিং করছেন।

বুধবার (২৫ মে) দুপুরে ভোলার তজুমদ্দিনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, দেশে দুর্যোগের বড় সমস্যা বেড়ি বাধ, তাই টেকশাই বাধ নির্মান করে উপকূলের মানুষকে রক্ষা করতে হবে। পাশাপাশি সাইক্লোন সেল্টার নির্মানের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে।

তিনি বলেণ, রোয়ানুর প্রভাবে দেশের ১৬টি জেলা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে, এরমধ্যে বেশী ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ৬টি জেলা। আমাদের ব্যাপক প্রস্তুতি কারনেই দেশের ৭লাখ মানুষ রক্ষা পেয়েছে, অন্যথায় লাখ লাখ মানুষ মারা যেত।

প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে ত্রানমন্ত্রী আরো বলেন, দেশে পর্যপ্ত খাদ্যশস্য মজুদ রয়েছে, খাদ্য প্রবৃদ্বির হার ৫০লাখ মেট্রিক টন। তাই দুর্গত এলাকার মানুষ খাদ্যের জন্য কষ্ট করতে হবে না। এ সময় তিনি ভোলায় ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য আরো ত্রান দেয়ার ঘোষনা দেন।

মন্ত্রী পরে দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা লালমোহন, বোরহানউদ্দিন এবং ভোলা সদর পরিদর্শন করেন এবং ক্ষতিগ্রস্থদের মধ্যে ত্রান বিতরন করেন।

জেলায় এ পর্যন্ত ১৮ লাখ টাকা ও ৩০০ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এছাড়ও ঝড়ে নিহত পরিবারকে নগত ২০ হাজার টাকা করে দেয়া হয়েছে। এছাড়াও ব্যাক্তিগত তহবিল থেকে সাংসদ নুরন্নবী চৌধূরী শাওন ও আলী আজম মুকুল ক্ষতিগ্রস্থদের ত্রান দিয়েছেন।






মন্তব্য চালু নেই