মেইন ম্যেনু

খুন করে সেই মৃতদেহের সঙ্গে যৌনমিলন করতো এই তরুণী!

বয়স ২৮-এর সুন্দরী নারী। চোখেমুখে আভিজাত্যের ছাপ স্পষ্ট। এই মহিলাই পুরুষদেরর খুন করে সেই দেহের সঙ্গে করতো যৌনসংসর্গ। শুধু তাই নয়, মৃতদেহের রক্ত দিয়ে স্নান করেছে। কখনও আবার পানও করেছে খুন করা ব্যক্তির রক্ত। মেক্সিকোর কুখ্যাত কারাগার ‘সেটাস কার্টেলে’ বন্দী করে রাখা হয়েছে এই খুনিকে। গত বছরের নভেম্বর মাসে এই হত্যাকারী মেক্সিকোর পুলিশের কাছে ধরা পড়েছিলেন। এরপর গত সপ্তাহে সংবাদমাধ্যমের সামনে আনা হয় এই হত্যাকারীকে।

কিশোরী অবস্থায় মাত্র ১৫ বছর বয়সে খুন করেছিল নিজের প্রেমিককে। সাংবাদিকদের সামনে খুব স্বাভাবিকভাবেই নিজের কির্তীর কথা অকপটে স্বীকার করেছে এই তরুণী। তার কথায়, “খুব কম বয়সেই আমি মাদকাসক্ত হয়ে পড়েছিলাম। ১৫ বছর বয়সে আমি প্রথম গর্ভবতী হই। আমার সন্তানের বাবা ছিল আমার চেয়ে ২০ বছরের বড়।”

সেই সময়ে একজন যৌনকর্মী হিসেবে কাজ করার পাশাপাশি পুলিশ এবং সেনাবাহিনীর গুপ্তচর হিসেবেও কাজ করতো। সেই সময় থেকেই পেশাদার খুনি হয়ে অঠে ওই মহিলা। জানা গিয়েছে কমপক্ষে ১১জনকে খুন করেছে সে। সেইসঙ্গে ৪৯ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যুর পিছনে এই মহিলার প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে যোগ রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই