মেইন ম্যেনু

খুশকি দূর করার ঘরোয়া উপায়

খুশকির সমস্যা নিয়ে অনেকেই দীর্ঘ সময় ভুগে থাকেন। এটি মূলত এমন একটি রোগ যা নিয়ম মেনে চলার ওপর এর সেরে ওঠা নির্ভর করে। তবে ঘরোয়া কিছু উপায় আর উপাদান খুব সহজে পারে খুশকিজনিত সমস্যা থেকে আপনাকে মুক্তি দিতে।

ভিনেগার
অনেকদিন ধরেই খুশকিজনিত সমস্যায় ভুগছেন? ঘরোয়া উপায়ে আর খুব সহজেই কিন্তু এর সমাধান আনা যায়। খুশকি দূর করার জন্য সবচেয়ে কার্যকরী উপাদানগুলোর মধ্য অন্যতম হচ্ছে ভিনেগার। আপেল সিডার ভিনেগার বা সাদা ভিনেগার দুইটাই খুশকি দূর করতে কাজে আসে। এক কাপের ৪ ভাগের ১ অংশ ভিনেগার এবং ৪ ভাগের ৩ অংশ পরিমাণ পানি একসাথে মিশিয়ে চুল ধোয়ার পর ব্যবহার করুন ভিনেগার দেয়ার পর আর চুল ধুবেন না। তোয়ালে দিয়ে মুছে নিন। চুল শুকানোর সঙ্গে সঙ্গে ভিনেগারের গন্ধও চলে যাবে। খুশকি দূর না হওয়া পর্যন্ত নিয়মিত ভিনেগার ব্যবহার করতে পারেন।

নিম
ছোটবেলা থেকেই আমরা সবাই নিমের উপকারিতার কথা শুনে এসেছি। এই নিমেই আছে ছত্রাক ও ব্যাকটেরিয়া নাশক উপাদান যা খুশকি দূর করতে সাহায্য করে। এর পাশাপাশি মাথার তালুর চুলকানি এবং চুল পড়া বন্ধ করতেও নিম পাতার ব্যবহার করা হয়।

নারিকেল তেল
খুশকি দূর করতে নারিকেল তেল অনেক বেশি উপকারী। গোসলের আধাঘন্টা আগে ৩ থেকে ৫ টেবিল চামচ নারিকেল তেল মাথার তালুতে লাগান লাগিয়ে রাখুন। তারপর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

লেবু
খুশকি দূর করতে লেবু খুব দ্রুত কাজ করে। গোসলের আগে মাথার তালুতে ভালোভাবে লেবু ম্যাসাজ করুন। কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলুন। লেবু খুশকি দূর করার পাশাপাশি চুলের আঠালো ভাব দূর করে এবং উজ্জ্বলতা দান করে।






মন্তব্য চালু নেই