মেইন ম্যেনু

গণবি’তে বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের প্রীতি ম্যাচ

গণ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি : গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তঃ বিভাগীয় ফুটবল (ছেলে-মেয়ে) টুর্নামেন্ট ২০১৬ শেষ হয়েছে। ২৩ আাগস্ট, মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হয় ছেলে ও মেয়েদের আলাদা ফাইনাল খেলা । মেয়েদের খেলায় আইন বিভাগ ট্রাইবেকারে ৪-৩ গোলে রাজনীতি ও প্রশাসন বিভাগকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হয়। বিকেলে ছেলেদের ইংরেজি ও কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের মধ্যে দ্বিতীয় ফাইনাল খেলাটি অনুষ্ঠিত হয়।

মেয়েদের ফুটবল খেলাকে উৎসাহিত করতে এদিন জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের লাল ও সবুজ দলের মধ্যে একটি প্রীতি ফুটবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগিতায় জাতীয় দলের লাল দল ৪-০ গোলে সবুজ দলকে পরাজিত করে। খেলায় লাল দলের সাবিনা হ্যাট্রিক করে। লাল দলের খেলোয়াড়রা হচ্ছেন: সাবিনা, লিপি, আয়েশা, সুরমি, ইতি, লাবনি, রুমা, আরিফা, মম, সাবিনা, অং¤্রাচিং ও সাথি এবং সবুজ দলের খেলোয়াড়রা হচ্ছেন: রওশন, খালেদা, সুরাইয়া, খাদিজা, মাইনু, মিরোনা, মিথিলা, রূপা, মুনমুন, মেসাইনু, রিক্তা ও অঞ্চু।

7654

প্রতিযোগিতায় গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫ শ্রেষ্ঠ মেয়ে খেলোয়াড়ও জাতীয় দলের সাথে খেলায় অংশগ্রহণ করে।

খেলা শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো: দেলোয়ার হোসেন বিজয়ীদের মধ্যে ট্রফি বিতরণ করেন। এসময় অতিথি হিসেবে এনাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের পরিচালক রওশন আক্তার চৌধুরী, গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা বিজ্ঞান অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. আশরাফ-উল করিম খান, কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. এম. নজরুল ইসলাম, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মীর মুর্ত্তজা আলী ও ক্রীড়া কমিটির সভাপতি মো: রফিকুল আলম উপস্থিত ছিলেন।

456

১৩ আগস্ট থেকে সাভারে অবস্থিত গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব মাঠে ‘আন্তঃ বিভাগীয় ফুটবল (ছেলে-মেয়ে) টুর্নামেন্ট ২০১৬’ শুরু হয়। নকআউট পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় ছেলেদের ১৪টি ও মেয়েদের ১২টি দল অংশগ্রহণ করে। উল্লেখ্য বাংলাদেশের সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে একমাত্র গণ বিশ্ববিদ্যালয়েই একাধিক মেয়ে ফুটবল দল রয়েছে এবং এখানে প্রতি বছর নিয়মিতভাবে ফুটবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।






মন্তব্য চালু নেই