মেইন ম্যেনু

গণশৌচাগারের দাবিতে রাস্তায় ভিনদেশি শিক্ষার্থীদের প্রচারণা

পথচারী, চালক, খেটে খাওয়া মানুষের জন্য চট্টগ্রাম নগরে পর্যাপ্ত ও পরিচ্ছন্ন গণশৌচাগারের দাবিতে রাস্তায় নামলেন ভিনদেশি শিক্ষার্থীরা। বাংলা ও ইংরেজিতে লেখা পোস্টার, প্ল্যাকার্ড হাতে গতকাল শুক্রবার দুই ঘণ্টা নগরে প্রচারণা চালান এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেনের কয়েকজন বিদেশি শিক্ষার্থী। এ সময় তাঁরা লিফলেটও বিতরণ করেন।

গতকাল বিকেলে এম এ আজিজ স্টেডিয়াম এলাকায় সড়কের পাশে ফুটপাতে প্ল্যাকার্ড হাতে দাঁড়িয়ে ছিলেন ১১ জন ভিনদেশি শিক্ষার্থী। তাঁদের হাতে থাকা পোস্টার ও প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল ‘চট্টগ্রাম শহরে পর্যাপ্তসংখ্যক গণশৌচাগার চাই’, ‘মহিলা ও পুরুষের জন্য পৃথক পাবলিক টয়লেট’, ‘পরিচ্ছন্ন পাবলিক টয়লেট আমাদের অধিকার’ ও ‘নো বডি ওয়ান্টস টু এন্টার’। তাঁদের দেখে অনেকেই কৌতূহল নিয়ে দাঁড়াচ্ছিলেন, মুঠোফোনে ছবি তুলছিলেন। শিক্ষার্থীরাও হাসিমুখে পথচারীদের হাতে লিফলেট তুলে দিচ্ছিলেন। দোভাষীর মাধ্যমে তাঁরা গণশৌচাগারের প্রয়োজনীয়তা ও পরিচ্ছন্নতা বিষয়ে বোঝাচ্ছিলেন পথচারীদের।

ভিয়েতনাম থেকে বাংলাদেশে পড়তে আসা শিক্ষার্থী ভি উইং বলেন, জনস্বাস্থ্যের জন্য পরিচ্ছন্ন শৌচাগার খুব প্রয়োজন। কিন্তু এখানে সেটির অভাব রয়েছে। এ বিষয়ে সচেতনতা বাড়াতে এ ধরনের প্রচারণা তাঁরা নিয়মিত চালাতে চান।

ভিনদেশি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে দোভাষী হিসেবে কাজ করছিলেন নগরের একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সালমান আবদুল্লাহ। তিনি বলেন, পথচারী, বিশেষ করে রিকশাচালক ও ভাসমান মানুষকে গণশৌচাগারের ব্যবহার সম্পর্কে সচেতন করা হয়েছে। তিনি বলেন, এই প্রচারণার উদ্দেশ্য হচ্ছে গণশৌচাগারের অপ্রতুলতা ও সমস্যার বিষয়ে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করা।

প্রচারণায় অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীরা জানান, ‘ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্ট’ নামের একটি বেসরকারি সংস্থার হয়ে তাঁরা এই প্রচারণামূলক কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছেন। নগরের এম এম আলী রোড থেকে এম এ আজিজ স্টেডিয়াম মোড় পর্যন্ত এই প্রচারণা চালানো হয়।






মন্তব্য চালু নেই