মেইন ম্যেনু

গত মার্চ মাসে নিখোঁজ হয়েছিল নিহত জঙ্গি মোবাশ্বের, সেই সময়ের “নিখোঁজ” সংবাদটি পড়ুন

গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁর হত্যাযজ্ঞে অংশ নেওয়া সন্ত্রাসীদের একজন মীর সামেহ মোবাশ্বেরের পরিবার এখনো যেন আছে ঘোরের মধ্যে। ছেলে যে এ ধরনের কিছু করতে পারে তা যেন বিশ্বাসই করতে পারছেন না মোবাশ্বেরের বাবা মীর হায়েত কবির।

স্কলাস্টিকা স্কুল থেকে ও লেভেল পাস করে এ লেভেল পরীক্ষার প্রস্তুতি নিচ্ছিল মোবেশ্বর। গত ২৯ ফেব্রুয়ারি বাড়ি থেকে বেরিয়েছিল কোচিং সেন্টারে যাওয়ার কথা বলে। তার পর থেকেই আর কোনো খোঁজ ছিল না মোবাশ্বেরের । চার মাস ধরে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও কোনো সন্ধান পায়নি মোবাশ্বেরের পরিবার। আর শেষপর্যন্ত তাদের সবচেয়ে বড় ভীতিটাই বাস্তব প্রমাণিত হয়েছে। মোবাশ্বেরকে দলে ভিড়িয়েছে সন্ত্রাসীরা।

গত শুক্রবার রাতে গুলশানে হামলার পর আইএসের বরাত দিয়ে পাঁচ হামলাকারীর ছবি প্রকাশ করে সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ। সেখানে দেখা যায় মোবাশ্বেরও। ছেলে যে এ ধরনের একটা নৃশংস কাণ্ড ঘটাতে পারে তা কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না বাবা হায়েত কবির। সিএনএনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ‘আমি যদি কোনোভাবে জানতাম যে সে সেখানে যাচ্ছে, তাহলে আমার জীবন দিয়ে হলেও সেটা থামাতাম। এটা হতেই পারে না।’

মোবাশ্বেরের নিখোঁজ হওয়ার সেই পুরাতন সংবাদটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন






মন্তব্য চালু নেই