মেইন ম্যেনু

গফরগাঁও-রানীশংকৈল পৌরসভা নির্বাচনে বাধা কাটল

ময়মনসিংহের গফরগাঁও ও ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈল পৌরসভার নির্বাচন স্থগিত করে দেওয়া হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেছেন চেম্বার আদালত। এই আদেশের ফলে এই দুই পৌরসভার নিবার্চন হতে বাধা নেই বলে জানিয়েছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ইকরামুল হক টুটুল।

বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের প্রেক্ষিতে চেম্বার বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী হাইকোর্টের আদেশ ৬ সপ্তাহের জন্য স্থগিত করে আদেশ দেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা। সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ইকরামুল হক টুটুল।

এর আগে গত ২২ ডিসেম্বর সীমানাসংক্রান্ত জটিলতার কারণে ময়মনসিংহের গফরগাঁও পৌরসভার নির্বাচন ৩ মাসের জন্য স্থগিত করেন হাইকোর্ট।

গফরগাঁও ইউনিয়নকে পৌরসভার মধ্যে অন্তভূক্ত করার দাবিতে ওই এলাকার বাসিন্দা মোহাম্মদ আলী নির্বাচন স্থগিত চেয়ে রিট আবেদন করেন।

এদিকে গত ৯ ডিসেম্বর সীমানা জটিলতার কারণে ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈল পৌরসভার নির্বাচনও স্থগিত করেন হাইকোর্ট।

২০০৪ সালে পৌরসভা গঠনের পর এই পৌরসভার আয়তন ছিল ৫ দশমিক ১২ বর্গকিলোমিটার। ২০১৪ সালে তা বাড়িয়ে ৫ দশমিক ৪৩ বর্গকিলোমিটার করা হয়। এর মধ্যে নতুন ৩৮৪টি হোল্ডিং নম্বর যোগ হয়। এসব হোল্ডিংয়ের বাসিন্দারা পৌরকরসহ সবকিছু পরিশোধ করছিলেন। কিন্তু নির্বাচনের গেজেটে বর্ধিত অংশের ভোটারদের বাদ দেওয়া হয়। এ ঘটনায় রানীশংকৈল পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী শরীফুল ইসলাম সীমানা নির্ধারণ ও তা গেজেট আকারে প্রকাশ ছাড়াই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট আবেদন করেন। গত ৮ ও ৯ ডিসেম্বর আবেদনের শুনানি হয়। শুনানি শেষে হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ রানীশংকৈল পৌরসভা নির্বাচন ছয় মাসের জন্য স্থগিত করে রুল দেন। পরে হাইকোর্টের এই আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ আবেদন করেন।

সেই আবেদনের শুনানি শেষে আজ চেম্বার বিচারপতি হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করে দেন






মন্তব্য চালু নেই