মেইন ম্যেনু

গরমে বদলে যাক সোনামনির চুলের ফ্যাশন

তীব্র গরমে ছোট বড় সবাই কাতর, কিন্তু শিশুরা একটু বেশিই ক্লান্ত হয়ে যায়। গরমের এই সময়ে তাদের কষ্ট সামলাতে দরকার বিশেষ প্রস্তুতি। মাথায় ঝাঁকড়া চুল থাকলে সব সময় ঘেমে ভিজে থাকে। বারবার ঘেমে ভিজে থাকার কারণে ঠান্ডা লেগে যায় ঘন ঘন। তাই বড়দের পাশাপাশি সোনামনির চুলের ফ্যাশনে চাই পরিবর্তন। তাছাড়া শিশুকে স্টাইলিশ করতে প্রত্যেক বাবা-মারও যে ইচ্ছার কমতি থাকে না। শিশুকে আকর্ষণীয় রূপে উপস্থাপন করতে জেনে নিন উপযুক্ত কিছু হেয়ার কাট সম্পর্কে।

এই গরমে শিশুর হেয়ার স্টাইল এমন হওয়া উচিৎ, যাতে দেখতে ভালো লাগবে আবার আরামদায়ক হবে। হেয়ার স্টাইলের জন্য শিশুদের পছন্দের বিষয়টি খেয়াল রাখতে হবে। শিশুদের হেয়ার স্টাইল করার আগে মনে রাখতে হবে তারা ঘোরাফেরা, খেলাধুলা, দুরন্তপনায় মেতে থাকতে ভালোবাসে। তাই চুল সাজিয়ে-গুছিয়ে রাখা একেবারেই সম্ভব নয়। সেজন্য মেয়েদের চুলের কাট হতে পারে- ববকাট, বয়কাট, মাশরুম কাট, ডায়না কাট, ট্যাপার কাট, স্লাইট সুইপ কাট। লম্বা হলে ইউ বা ভি কাটই ভালো। শিশুরা যে হেয়ার স্টাইলে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে এমন কাটই দেওয়া ভালো।

ছেলে বাচ্চাদের ক্ষেত্রে চুল ছোট রাখা উত্তম। তবে ছেলে বাচ্চাদের জন্য রয়েছে ক্র কাট, সিজার কাট, বাজ কাট, স্পাইক কাট, রাহুল কাট, স্টেপ কাট, আর্মি কাট, লেয়ার কাট, বয় কাট ইত্যাদি। বর্তমানে যেসব হেয়ার স্টাইল সবার নজর কাড়ছে সেটাও দেয়া যেতে পারে। শিশুর মুখের গঠন ও আকৃতির ওপর ভিত্তি করে হেয়ার স্টাইল দেওয়া যেতে পারে।

খেলাধুলা আর দৌড়াদৌড়িতে শিশুর চুলে ধুলাবালি লেগে যায় খুব বেশি। চুলের সৌন্দর্য বজায় রাখতে প্রতিদিন তাদের চুল ভালোভাবে ধুতে হবে। এসব চুলের কাটে বাচ্চারা কিছুটা স্বস্তি পাবে। চুলের ভেতর বাতাস প্রবেশ করবে, ঘাম জমে ঠান্ডা লাগবে না।






মন্তব্য চালু নেই