মেইন ম্যেনু

গরীবদের পাশে থাকার অঙ্গীকার করলেন শচীন

কেরিয়ারে অজস্র রেকর্ড গড়েছেন শচীন ঢেন্ডুলকার। ১০০টা সেঞ্চুরি থেকে টেস্ট-ওয়ানডে মিলিয়ে সর্বোচ্চ রান (৩৪৩৪৭) ৷এই নজির হয়তো নজির হয়েই থেকে যাবে৷

কিন্তু বাইশ গজকে বিদায় জানানোর পরেও মাস্টারব্লাস্টার রেকর্ড করতে পারেন৷এটাই শচীন৷‘ক্রিকেট ঈশ্বর’ লন্ডনে ফেলোশিপ এশিয়ান অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হলেন৷ চতুর্থ এশিয়ান হিসেবে এই নজির গড়লেন তিনি৷এর আগে রবিশঙ্কর, স্যার বেন কিংসলে ও জ্যাকি চ্যান এই সম্মানে ভূষিত হয়েছেন৷

২০১০ থেকে এই পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে৷ উপমহাদেশের কৃতিদীরেই এই পুরস্কার দেওয়া হয়ে থাকে৷ প্রথম বছরেই সচিন পেয়েছিলেন ‘লেবারা পিপল’স চয়েস’৷ শচীন এই অনুষ্ঠানে এসে জানিয়েছেন যে, চ্যারিটি ও একাধিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে টাকা তুলে গরীব মানুষদের সাহায্য করতে চান তিনি৷‘

সোলার লাইট’ দেওয়ার পরিকল্পনাও রয়েছে মাস্টারব্লাস্টারের৷ শচীন রাজ্যসভার সাংসদ হয়ে ইতিমধ্যেই দু’টি গ্রাম দত্তক নিয়েছেন৷ একাধিক সমাজসেবার সঙ্গে জড়িত তিনি৷ শচীনের চরিত্রের এই মানবিক দিকটাই তাঁকে অনন্য করে তুলেছে৷ ২০১৩-তে ক্রিকেট গুডবাই বলার পর শচীন এসব কাজেই নিজেকে ব্যাস্ত রেখেছেন শেষ চার বছর৷






মন্তব্য চালু নেই