মেইন ম্যেনু

গর্ভাকালীন সময়ে এই ৫টি বিউটি ট্রিটমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন

মা হওয়ার মাধ্যমে একজন নারীর পূর্ণতা লাভ করেন। গর্ভকালীন সময়টা প্রতিটি নারীর জন্য গুরুত্বপূর্ণ। এইসময় একজন নারীকে থাকতে হয় বেশি সচেতন। গর্ভকালীন সময়ে পরিবারের সবাই নারীর স্বাস্থ্যের দিকে নজর রাখলেও ত্বকের দিকে অনেকেই খেয়াল করেন না। অথচ এই সময় ত্বকে কালো দাগ, ব্রণ, মেছতাসহ নানা সমস্যা দেখা দেয়। তাই ত্বকের বাড়তি যত্ন নিতে হয় গর্ভকালীন সময়। কিন্তু এই সময় ইচ্ছামত বিউটি ট্রিটমেন্ট গ্রহণ করা যাবে না। মনে রাখতে হবে, এখন আর আপনি একা নন। কিছু কিছু বিউটি ট্রিটমেন্ট আপনার গর্ভের শিশুর ক্ষতির কারণ হতে পারে। এমন কিছু বিউটি ট্রিটমেন্ট যা গর্ভকালীন এড়িয়ে যাওয়া ভাল-

১। হেয়ার রিবন্ডিং

সুন্দর সিল্কি ঝলমলে চুল সব নারীর কাম্য। আর এই সিল্কি চুল পেতে নারীরা হেয়ার রিবন্ডিং করে থাকেন। কিন্তু গর্ভকালীন সময় হেয়ার রিবন্ডিং করা থেকে বিরত থাকুন। হেয়ার রিবন্ডিং এ সোডিয়াম হাইড্রোঅক্সাইড নামক এক ধরণের কেমিক্যাল ব্যবহার করা হয় যা পানির সাথে মিশে ত্বক জ্বালাপোড়া এবং অ্যালার্জি সৃষ্টি করতে পারে। এছাড়া রিবন্ডিং মাথার তালু থেকে শরীরে ভিতরে প্রবেশ করে। যা রক্তের সাথে মিশে আপনার সন্তানের ক্ষতি করতে পারে।

২। ট্যাটু আঁকা

শরীরের ট্যাটু আঁকা অনেকের শখ থাকে। ট্যাটু এর কেমিক্যাল প্রভাব কম হলেও এর থেকে ইনফেকশন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। যা থেকে হেপাটাইটিস বি এর মত মারাত্নক রোগও হতে পারে। তাই গর্ভকালীন সময় ট্যাটু আঁকা থেকে বিরত থাকুন।

৩। ফেসিয়াল

সাধারণ ফেসিয়াল ত্বকের জন্য ক্ষতিকর নয়। বরং এটি ত্বক সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। তবে স্পেশাল ফেসিয়াল অথবা তাপ ব্যবহার হয় এমন কোন বিউটি ট্রিটমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন। অতিরিক্ত তাপের কারণে শরীরের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পায়, যা শিশুর ক্ষতির কারণ হতে পারে।

৪। হেয়ার কালার

হেয়ার কালারে ব্যবহৃত উপাদান আমাদের ত্বক শুষে নিতে পারে। যা সাধারণ মানুষের জন্য ক্ষতিকর নয়। কিন্তু গর্ভকালীন সময় অনেক বেশি সেনসিটিভ থাকে ত্বক তাই এইসময় এই সামান্য পরিমাণ রাসায়নিক পর্দাথ ক্ষতির কারণ হতে পারে। যা শিশুর বৃদ্ধি বাধাগ্রস্ত করতে পারে।

৫। নাক, কান ফোরানো

নাক বা কান ফোরানো সরাসরি ক্ষতি করে না। তবে অনেক সময় এই ফোরানো স্থানে ইনফেকশন দেখা দেয়। যা থেকে ঘা, খোস পাঁচড়া দেখা দিতে পারে। এই ইনফেকশন থেকে অন্য কোন অসুখ দেখা দিতে পারে।

যেকোন ধরণের উচ্চ রাসায়নিক পর্দাথ ক্রিম ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। নতুন কোন পণ্য ব্যবহার করার আগে ভাল করে লেবেল পড়ে নিন। একটু অসাবধান হলে এটি আপনার ত্বকের ক্ষতি করতে পারে।






মন্তব্য চালু নেই