মেইন ম্যেনু

গাঁজা দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টা, কনষ্টেবল ক্লোজড

খুলনা রেল স্টেশনে চুয়াডাঙ্গার সাংবাদিককে হেনস্থা করায় পুলিশের এক কনষ্টেবলকে ক্লোজড করা হয়েছে।

জানা যায়, চুয়াডাঙ্গার ওই সাংবাদিকের নাম এসএম শাফায়েত উল্লাহ। চুয়াডাঙ্গার স্থানীয় দৈনিক আকাশ খবর এর স্টাফ রিপোর্টার। সোমবার দর্শনা থেকে ট্রেনযোগে তিনি রাত ১০টার দিকে খুলনা স্টেশনে নামেন। এ সময় স্টেশনের বাইরে পুলিশ সদস্য (কনস্টেবল) জাকির হোসেন নিজেকে এএসআই পরিচয় দিয়ে তার ব্যাগ এবং আমের কার্টুন তল্লাশি করেন।

কিন্তু কিছু না পেয়ে নিজের কাছে থাকা এক পুরিয়া গাঁজা হাতে নিয়ে সেটি তার কাছে পেয়েছেন বলে দাবি করেন ওই কনস্টেবল। বিষয়টি ফাঁসের ভয় দেখিয়ে তার কাছে ২০ হাজার টাকাও উৎকোচ দাবি করেন। তা দিতে অস্বীকৃতি জানালে কালীবাড়ি সদর ফাঁড়িতে নিয়ে তার ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে ছেড়ে দেওয়া হয়।

এদিকে খুলনার সাংবাদিকদের সহায়তায় শাফায়েত উল্লাহ মঙ্গলবার এ বিষয়ে কেএমপি কমিশনারের সঙ্গে দেখা করে লিখিত অভিযোগ করেন। এ পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ কমিশনারের নির্দেশে তাৎক্ষনিকভাবে কনষ্টেবল জাকির হোসেনকে সদর ফাঁড়ি থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে খুলনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শফিকুল ইসলাম মঙ্গলবার রাতে বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়ে কনষ্টেবল জাকির হোসেনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

অভিযোগ আছে, কালিবাড়ি সদর ফাঁড়িতে কর্মরত পুলিশ সদস্য (কনস্টেবল) জাকির হোসেন (কং নং-৪৪৯৮) দীর্ঘ দিন ধরে নিজেকে এএসআই পরিচয় দিয়ে সাধারণ মানুষকে হয়রানি করে আসছে।






মন্তব্য চালু নেই