মেইন ম্যেনু

গাইনি চিকিৎসার নামে রোগীদের যৌন নিপীড়ন!

অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে রাফায়েল দ্য পাওলো (৫৯) নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ (গাইনি চিকিৎসক) সেজে রোগীদের যৌন নিপীড়ন করার অভিযোগ উঠেছে। এরই মধ্যে তাঁর বিরুদ্ধে ২৮টি ধর্ষণের অভিযোগ আনা হয়েছে।

আরও ২৭ নারী রোগীর সঙ্গে জোর খাটিয়ে যৌনসম্পর্ক গড়াসহ বিভিন্ন ধরনের ৮০টি অভিযোগ উঠেছে।

মেলবোর্নের পুলিশের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান জানায়, রাফায়েল একজন নিবন্ধিত ডাক্তার সেজে ২০০৪ সালের জুলাই থেকে ২০১৫ সালের মে পর্যন্ত কাজ চালিয়ে যান। ওই সময়ে তিনি প্রায় সাড়ে তিন লাখ মার্কিন ডলার আয় করেন। আর ওই সময় সন্তান জন্মদানে জটিলতা নিয়ে আসা ২৮ নারীকে তিনি ধর্ষণ করেন এবং ২৭ নারীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক গড়েন। এ ছাড়া চিকিৎসাসেবা দেয়ার প্রশিক্ষণ না থাকা সত্ত্বেও ২১টি ক্ষেত্রে তিনি চিকিৎসা দেয়ার নাম করে অর্থ আদায় করেন। রাফায়েলের বিরুদ্ধে আরো দুটি অভিযোগ আছে রোগীদের মারধর করার।

শুক্রবার মেলবোর্নের আদালতে বলা হয়, ভুয়া গাইনি রাফায়েল দ্য পাওলোর বিরুদ্ধে আরো অভিযোগ হতে পারে। ওই ভুয়া ডাক্তারকে ২০ জুন পর্যন্ত জামিন দেয়া হয়।

গার্ডিয়ান জানিয়েছে, রাফায়েল দ্য পাওলোর বিরুদ্ধে অবৈধভাবে অর্থ আদায়ের অভিযোগ হয়েছে ২০০৪ সালে। আর ২০১০ সালে হয়েছে ধর্ষণের অভিযোগ।






মন্তব্য চালু নেই