মেইন ম্যেনু

গাধার দুধ দিয়ে গোসল করেন রানী!

মিশরের রানী লেওপাত্রা প্রতিদিন গাধার দুধ দিয়ে গোসল করতেন। ৭০০ গাধার নিকট থেকে এই দুধ সরবরাহ করা হত। কিন্তু এখন সাধারণ মানুষও সেই কায়দা অবলম্বন করার চেষ্টা করছে। তাই গাধার দুধ দিয়ে সাবান ও বিভিন্ন ময়েশ্চারাইজার পণ্য তৈরি করা হচ্ছে।

গাধার দুধে মুখের বলিরেখা দূর হয়, ত্বক ময়েসচারাইজ করে এবং আরও উজ্জ্বল করে তোলে। এছাড়াও বিভিন্ন ধরণের রোগ দূর করার জন্য গাধার দুধ ব্যবহার করা হত। জ্বর ও বিভিন্ন ধরণের ইনফেকশন জনিত রোগ দূর করতে, বিষক্রিয়া, পেশীর ব্যাথা এবং চামড়ার সমস্যা সমাধানে গ্রীক চিকিৎসাবিদগণ গাধার দুধ ব্যবহার করতেন। পোপ ফ্রান্সিস ২০১৪ সালে একবার বলেছিলেন তিনি আর্জেন্টিনায় থাকতে বিভিন্ন সময় গাধার দুধ পান করেছিলেন।

গাধার দুধের স্বাদ গরুর দুধের মত। কিন্তু গরুর দুধের তুলনায় এটি বেশি সুমিষ্ট। এতে ফ্যাটের মাত্রা কম। এতে অ্যানটি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান রয়েছে। যা ঠাণ্ডাজনিত সমস্যা দূর করে।–সুত্র: টাইম্‌স অফ ইন্ডিয়া।






মন্তব্য চালু নেই