মেইন ম্যেনু

গায়িকা পড়শি’র নায়িকা হওয়ার অভিজ্ঞতা

ক্ষুদে গানরাজের মাধ্যমে সঙ্গীতাঙ্গনে পদার্পণ পড়শি’র। এখন পর্যন্ত উপহার দিয়েছেন অসংখ্য শ্রোতাপ্রিয় গান। নিজের গানের মিউজিক ভিডিওতে মডেল হিসেবে পারফর্মও করেছেন অনেকবার। কিন্তু এবার মিউজিক ভিডিওর মডেল হিসেবে নয়, দর্শকদের সামনে হাজির হতে যাচ্ছেন নায়িকা পড়শি।

খবরটা পুরনো। প্রায় বছর খানেক আগেই জানা গিয়েছিল যে ‘মেন্টাল’ ছবির জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন পড়শি। কিন্তু নানান কারণে এই ছবির শুটিং পিছিয়ে যাওয়ায় পড়শির নায়িকা হিসেবেও ক্যামেরার সামনে দাঁড়ানো পিছিয়ে যায়। অবশেষে অক্টোবর মাসের মাঝামাঝি সময়ে শুটিং এ অংশ নেন পড়শি।

প্রথম চলচ্চিত্রের জন্য প্রথম ক্যামেরায় দাঁড়ানোর সময়ের অনুভূতি কেমন ছিল জানতে চাওয়া হয় পড়শি’র কাছে। উত্তরে পড়শি বলেন, ‘ক্যামেরার সামনে দাঁড়ানোর আগের দিন থেকেই অনেক টেনশনে ছিলাম। সবচেয়ে বেশি টেনশনে ছিলাম শাকিব ভাইয়াকে নিয়ে। তার মত এত বড় একজন অভিনেতা আমাকে কেমনভাবে নেবেন এটা নিয়ে অনেক টেনশনে ছিলাম। কিন্তু যখন ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালাম, আমার সব টেনশন উড়ে গেল। শাকিব ভাইয়া অনেক হেল্পফুল ছিলেন। যার জন্য খুব বেশি বেগ পেতে হয় নি।’

এবার জানতে চাইলাম, প্রথম সিকুয়েন্সটা কি ছিল এবং শটটা কতবারে ওকে হয়েছিল? জবাবে পড়শি জানান, ‘এই ছবিতে আমারই গাওয়া একটি গানের সঙ্গে ঠোঁট মেলানোর মাধ্যমে শুরু হয় আমার যাত্রা। গানটির নাম ‘মন নাজেহাল’। এই গানে আমার সঙ্গে দ্বৈত কণ্ঠ দিয়েছেন শান দাদা। এই শটটি ২/৩ বারে ওকে হয়েছিল। যেহেতু গানের শুটিং ছিল আর এর আগে আমি মিউজিক ভিডিওতে পারফর্ম করে অভ্যস্ত তাই খুব একটা অসুবিধা হয় নি। তাছাড়া শাকিব ভাইয়া সহ ইউনিটের সকলের পূর্ণ সাপোর্ট পেয়েছিলাম তাই খুব সহজেই নিজেকে মানিয়ে নিতে পেরেছিলাম।’

তবে পড়শি’র আসল পরীক্ষা শুরু হয়েছে গত ৪ ডিসেম্বর থেকে। এদিন থেকে এই চলচ্চিত্রে তার অভিনয়ের অংশের শুটিং শুরু হয়। পরীক্ষাটি একটু কঠিন হলেও পড়শির আশা এই পরীক্ষাতেও সফলতার সহিত উতরে যাবেন তিনি। তিনি বলেন, ‘আমি সবসময় যে কোন ব্যাপারেই আশাবাদী থাকি। এই ব্যাপারটিও তার ব্যতিক্রম নয়।‘

অভিনয়ের বাইরে গান নিয়েও বেশ ব্যস্ত সময় পার করছেন পড়শি। সম্প্রতি তিনি হৃদয় খানের সঙ্গীতায়োজনে একটি রবীন্দ্রসঙ্গীতে কণ্ঠ দিয়েছেন। ‘যেতে যেতে একলা পথে’ শিরোনামের এই গানটির মাধ্যমে প্রথমবারের মতো কোন চলচ্চিত্রের গানে রবীন্দ্রসঙ্গীত গাইলেন পড়শি। গানটি জাজ মাল্টিমিডিয়া পরিবেশিত ‘ডিটেকটিভ’ ছবিতে ব্যবহৃত হবে।

এছাড়া খুব শিগগিরই প্রকাশিত হবে পড়শির গাওয়া প্রথম রবীন্দ্রসঙ্গীত ‘আমারও পরানও যাহা চায়’ গানটি। গানটি মিউজিক ভিডিও সহ প্রস্তুত আছে। এখন শুধু প্রকাশের অপেক্ষা বলে প্রিয়.কমকে জানান পড়শি।






মন্তব্য চালু নেই