মেইন ম্যেনু

গুগলের ১৭তম জন্মদিনে জেনে নিন গুগলের অবাক করা ১৭ তথ্য

আজ গুগলের ১৭তম জন্মদিন। ১৯৯৮ সালের এই দিন থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে সার্চ ইঞ্জিনটি।

যাত্রা শুরুর পর থেকে অনেক চড়াই উতরাই পেরিয়ে গুগল আজকের এই অবস্থানে এসেছে। বর্তমানে কোন তথ্য খুঁজতে সবাই প্রথমেই ঢু মারে গুগলে।

গুগল আমাদের এতো প্রয়োজনীয় একটি অনুষঙ্গ কিন্তু গুগল সম্পর্কে আমরা কতোটা জানি? চলুন, জেনে নেওয়া যাক গুগল সম্পর্কে এমন কিছু তথ্য যা অনেককেই অবাক করবে।

১. প্রথম দিকে গুগল প্রতি সেকেন্ডে ৫০টি পেজ প্রসেস করতে পারতো। বর্তমানে প্রতি সেকেন্ডে কয়েকশ পেজ প্রসেস করে গুগল।

২. গুগলের আসল নাম ‘ব্যাকরাব’।

৩. গুগলের নামটি এসেছে মূলত গাণিতিক শব্দ ‘Googol’ থেকে। তবে গুগলের প্রতিষ্ঠাতাদের একজন ভুল করে এটিকে ‘Google’ লিখে ফেলেন যা আর পরিবর্তন করা হয়নি।

৪. গুগলের আনঅফিসিয়াল শ্লোগান হলো ‘Don’t be evil.’

৫. গুগলের শুরুর দিকে এর প্রতিষ্ঠাতারা এটি বিক্রি করে দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। কারণ তারা নিজেরা কোন ব্যবসা শুরু করতে আগ্রহী ছিলেন না। এমনকি তারা গুগল বিক্রি করতে ইয়াহুর কাছেও ধর্না দিয়েছিলেন। তবে ইয়াহু গুগল কিনে নিতে রাজি হয়নি।

৬. এবারের ঘটনা উল্টো। ২০০২ সালে ৩০০ কোটি ডলারের বিনিময়ে গুগল কিনতে চেয়েছিল ইয়াহু। কিন্তু এবার না বলে দিল গুগল।

৭. গুগলের প্রথম ডুডলটি ছিল এটা জানানোর জন্য যে এর উদ্যোক্তারা অফিসের বাইরে আছেন এবং বার্নিং ম্যান ফেস্টিভালে যোগ দিতে গিয়েছেন। কোন কারিগরি সমস্যা হলে তারা এখন সমাধান করতে পারবেন না।

৮. ২০০০ সালের ১লা এপ্রিল ব্যবহারকারীদের বোকা বানাতে চেয়েছিল গুগল । গুগল বলেছিল, এটি ব্যবহারকারীদের মন পড়তে পারে।

৯. আর এই ধোকার খবর ব্যবহারকারীদের মনে ছিল ২০০৪ সাল পর্যন্ত। কারণ এ বছর গুগল যখন জিমেইল চালু করে, তখন অনেকেই এই খবরকেও ধোঁকাবাজি মনে করেছিল।

১০. অনুবাদকদের নিয়ে গুগলের রয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় নেটওয়ার্ক।

১১. গুগলে আছে স্ট্যান নামের একটি টি-রেক্স। এর উদ্যোক্তারা এটি কিনেছিলেন গুগল কর্মীদের মনে করিয়ে দেওয়ার জন্য যে গুগলকে বিলুপ্ত হতে দেওয়া যাবে না।

১২. গুগল ক্যাম্পাসে ঘাস লতাপাতা পরিষ্কার করার জন্য আছে ভাড়া করা ২০০ ছাগল।

১৩. মরুভূমির স্ট্রিট ভিউ ছবি পেতে গুগল উট ভাড়া করেছিল।

১৪. কোন সার্চ রেজাল্ট প্রদর্শনের আগে গুগল ২০০টি ফ্যাক্টর বিবেচনা করে।

১৫. প্রতি সেকেন্ডে গুগলে সার্চ হয় ২০ লাখ বার।

১৬. গুগল কর্মীদের বলা হয় ‘গুগলার’। তবে নতুন কর্মীদের বলা হয় ‘নুগলার’।

১৭. গুগলের প্রথম টুইট ছিল বাইনারি কোডে ‘I’m feeling lucky’ বাক্যটি যা ছিল “I’m 01100110 01100101 01100101 01101100 01101001 01101110 01100111 00100000 01101100 01110101 01100011 01101011 01111001 00001010″​






মন্তব্য চালু নেই