মেইন ম্যেনু

গুগ্‌ল-এ ‘আই অ্যাম ফিলিং লাকি’ বাট্‌নের কাজ কী? জানেন?

গুগ্‌ল সার্চে গিয়ে সকলে সাধারণত যা প্রয়োজন, তা টাইপ করে ‘সার্চ’ বাট্‌নটি ক্লিক করেন। চোখের সামনে খুলে যায় লম্বা তালিকা। কিন্তু পাশেই একটি বাট্‌ন থাকে, খেয়াল করেছেন?

বলতে পারেন, ‘‘গুগ্‌ল সার্চ’’-এ গিয়ে আপনি কতবার ‘‘আই অ্যাম ফিলিং লাকি’’ বাট্‌নে ক্লিক করেছেন? গড়পরতা সকলেই ‘‘গুগ্‌ল সার্চ’’ বাট্‌নেই ক্লিক করেন। পেয়ে যান যা খুঁজছেন, তার দীর্ঘ তালিকা। সেখান থেকে বেছে নিতে হয় নিজের পছন্দের লিংক। কিন্তু ঠিক তার পাশেই আর একটি বাট্‌ন থাকে। দেখা গিয়েছে, ওই বাট্‌নে খুব বেশি ক্লিক হয় না।

প্রশ্ন স্বাভাবিকভাবেই ওঠে যে, তাহলে কেন একটি ‘প্রায় অকেজো’ বাট্‌ন রেখে দিয়েছে গুগ্‌ল? কী এই বাট্‌ন-এর কাজ?

যাঁরা জানেন, তাঁরা নিঃসন্দেহে এতক্ষণে বলে ফেলেছেন। যাঁরা জানেন না, তাঁদের উদ্দেশে জানিয়ে রাখা যাক, এই বাট্‌নটি অনেকটা এটিএম-এর ফাস্ট ক্যাশ-এর মতো। আপনি যেটা খুঁজছেন, সরাসরি আপনাকে সেই সংক্রান্ত প্রথম ওয়েবপেজ-এ নিয়ে যায় এই বাট্‌নটি। কেমন? উদাহরণ দিয়ে বোঝানো যাক। ধরা যাক, আপনি ‘‘অক্ষয় কুমার’’ বলে সার্চ করলেন। ‘‘গুগ্‌ল সার্চ’’ বাটনে ক্লিক করলে, আপনার সামনে অক্ষয় কুমার সংক্রান্ত গাদা গাদা তথ্য চলে আসবে। কিন্তু ‘‘আই অ্যাম ফিলিং লাকি’’ বাটনে ক্লিক করলে আপনাকে সরাসরি অক্ষয় কুমার সংক্রান্ত প্রথম ওয়েব পেজ, অর্থাৎ, উইকিপিডিয়া পেজে নিয়ে যাবে। ঠিক একইভাবে আপনি যদি ‘‘এবেলা’’ লিখে ‘‘আই অ্যাম ফিলিং লাকি’’ বাটন ক্লিক করেন, আপনি চলে আসবেন ‘‘এবেলা.ইন’’-এর হোমপেজে। চটজলদি সমাধান।

এত কাজের জিনিস, অথচ ক’জন এই সার্চ করেন জানেন? উত্তর শুনলে চমকে উঠবেন। মাত্র ১ শতাংশ!
কী ভাবছেন, এখানেই শেষ? অবাক হওয়ার পালা এখনও বাকি রয়েছে। এমন একটি বাটনের পিছনে গুগ্‌ল বছরে কত অর্থ ব্যয় করে জানেন? ১১০ মিলিয়ন ডলার! এবারে বুঝেছেন তো, আমরা অবজ্ঞা করলে কী হবে, গুগ্‌ল কিন্তু একে যথেষ্ট গুরুত্ব দেয়।






মন্তব্য চালু নেই