মেইন ম্যেনু

গৃহকর্তীর মাকে নির্যাতনে এবার গৃহকর্মী! (ভিডিও)

দেশে গৃহকর্মীদের ওপর নানা ধরনের অত্যাচারের কথা শোনা যায়।নির্যাতনে কখনো কখনো গৃহকর্মীদের মৃত্যুও হচ্ছে। তবে এর উল্টো চিত্রও রয়েছে পৃথিবীতে।ব্রাজিলে সম্প্রতি বাসায় এক গৃহকর্তীর বৃদ্ধ মায়ের ওপর গৃহকর্মীর অকথ্য নির্যাতনের একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে।এটি নিয়ে গণমাধ্যমেও তোলপাড় চলছে।

প্রতিবেদেনে বলা হয়েছে,অসুস্থ মাকে নিয়েই মেয়ে মিরিয়াম ম্যারিনোর সংসার। চাকরির কারণে দিনের বেশিরভাগ সময় বাসার বাইরে থাকতে হয় তাকে। মাকে দেখাশোনা করার জন্য একজন গৃহকর্মী রেখেছেন। সকালে অফিসে যাওয়ার পর বাসায় থাকে শুধু ম্যারিনোর মা আর গৃহকর্মী।এই সুযোগে ওই গৃহকর্তীর ৯৪ বছরের বৃদ্ধা মাকে মারধর করে গৃহকর্মী।এ নিয়ে প্রতিবেশিরা অভিযোগ করলেও প্রথমে আমলে নেয়নি ম্যারিনো।

স্মৃতিভ্রংশ রোগে ভোগার কারনে মাও তার মেয়েকে বিষয়টি বুঝিয়ে বলতে পারতো না।গৃহকর্মীও অভিযোগ অস্বীকার করতো।

কিন্তু প্রতিবেশিদের অভিযোগ যে ম্যারিনা একেবারে আমলে নেননি তা নয়।বিষয়টি মাথায় রেখে এক পর্যায়ে গৃহকর্মীর অগোচারে বাসায় গোপন ক্যামেরা বসানোর পর নির্যাতনের সত্যতা মেলে।

সম্প্রতি গোপন ক্যামেরায় ধারণ করা ওই ভিডিওটি প্রকাশ করেছেন ম্যারিনো।

দি সান পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তিন বছর আগে ম্যারিনোর অসুস্থ বৃদ্ধা মাকে দেখাশোনা করার জন্য একজন গৃহকর্মী নিয়োগ দেন ম্যারিনো।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে,অসুস্থ ওই বৃদ্ধা সোফায় বসে আছেন। আর গৃহকর্মী তাকে মারধর করছেন। কখনো চুল ধরে টানাটানি করছেন, কখনো বা কিলঘুষি মারছেন।তবে বৃদ্ধা গৃহকর্মীর হাত থেকে বাঁচার আপ্রাণ চেষ্টা করেও কুলিয়ে উঠতে পারছেন না।সোফায় শুয়ে অসুস্থ বৃদ্ধাকে লাথিও মারতে দেখা গেছে গৃহকর্মীকে।

গোপন ক্যামেরায় ধারণ করা ওই ভিডিও দেখে ম্যারিনো বলেছেন, গত তিন বছরে ওই গৃহকর্মী তার মায়ের ওপর কতই না অত্যাচার করেছে।

ভিডিওটি দেখতে এই লিংক-এ ক্লিক করুন…






মন্তব্য চালু নেই