মেইন ম্যেনু

গোটা দেশ আজ কারাগারে পরিণত হয়েছে

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, ‘রাজনীতিকসহ দেশের সাধারণ মানুষ আজ বন্দি। বাকস্বাধীনতা নেই। কেউ স্বাধীনভাবে কথা বলতে পারছে না। সরকারের লোকেরা অপরাধ করলে বিচার হয় না। নিরপরাধ লোকদের বন্দি করা হচ্ছে। গোটা দেশ আজ কারাগারে পরিণত হয়েছে। এ অবস্থা থেকে দেশ ও জাতিকে মুক্তি দিতে হবে।’

বৃহস্পতিবার রাজধানীর একটি হোটেলে জোটের শরিক ইসলামী ঐক্যজোট আয়োজিত ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বেগম জিয়া এসব অভিযোগ করেন।

ইফতারের ১২ মিনিট আগে তিনি ইফতার মাহফিলে এসে পৌঁছান।

খালেদা জিয়া বলেন, ‘জনগণের ভয়ে আওয়ামী লীগ সরকার নির্বাচন দিচ্ছে না। তারা বিচারের ভয়ে নির্বাচন না দিয়ে ক্ষমতায় আঁকড়ে থাকার চেষ্টা করছে। কিন্তু এই জনগণই একদিন ফ্যাসিস্ট সরকারকে ক্ষমতা থেকে টেনে নামাবে।’

ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ নেজামীর সভাপতিত্বে ইফতার পার্টিতে জোটের শীর্ষ নেতা কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মোহাম্মদ ইব্রাহিম, জামায়াতের কর্মপরিষদ সদস্য আমিরুল ইসলাম, জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান, মুসলিম লীগের সভাপতি এইচ এম কামরুজ্জামান, এনপিপির চেয়ারম্যান ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান প্রমুখ।

এ ছাড়া বিএনপি নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মীর মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, বিএনপির বর্তমান মুখপাত্র ড. আসাদুজ্জামান খান রিপন, দলের সাংগঠনিক ফজলুল হক মিলন, যুবদল সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল। ইসলামী ঐক্যজোট নেতাদের মধ্যে ছিলেন মহাসচিব মুফতী ফয়জুল্লাহ, আবুল হাসানাত আমিনী, মুফতি তৈয়ব, মাওলানা যুবায়ের প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই