মেইন ম্যেনু

গোপনে শিক্ষার্থীদের গোসলের দৃশ্য ভিডিও ধারণ করলো শিক্ষক, অত:পর…

গত প্রায় ১৬ বছর ধরে গোপনে শতাধিক শিক্ষার্থীর গোসলের ছবি ভিডিওবন্দি করায় প্রায় চার বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হল ব্রিস্টলের ক্লিফটন কলেজের প্রাক্তন শিক্ষককে। অপরাধ স্বীকার করেছেন জোনাথন টমসম-গ্লোভার নামে ৫৩ বছর বয়সি ওই ব্যক্তি। তাঁর কম্পিউটারটি টিনএজ পড়ুয়াদের অশালীন ছবি ডাউনলোড করায় ব্যবহার করা হচ্ছে বলে ব্রিটেনের জাতীয় অপরাধ তদন্ত সংস্থা জানতে পারে। তারপর গত বছর তাঁকে গ্রেফতার করা হয়।

দি ইন্ডিপেন্ডেন্ট পত্রিকার বরাদে ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে এ খবর, জোনাথনের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ৩০০-র বেশি ভিডিও পাওয়া গিয়েছে। তাতে মোট ২৫০০ ঘণ্টার বেশি ফুটেজ রয়েছে।

জানা গিয়েছে, পড়ুয়াদের আপত্তিকর ছবি রেকর্ড করতে ছুটির দিনগুলিতে দেওয়ালে গোপন ক্যামেরা ফিট করতেন জোনাথন। ক্যামেরার সঙ্গে জুড়ে দিতেন নিজের আবাসে রেখে দেওয়া ভিডিও রেকর্ডারকে।

বেসরকারি বোর্ডিং স্কুলে থাকাকালে তিনি ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সি ১২০ জন পড়ুয়ার স্নান ও শয্যার দৃশ্যের ভিডিও করেছেন। তাদের একান্ত নিজস্ব মূহূর্তগুলি ক্যামেরায় তুলে রাখেন তিনি। জেরায় পড়ুয়াদের ছবি তোলা, ভিডিও করা ও নিজের কাছে রাখার মোট ৩৬ দফার অভিযোগ মেনে নিয়েছেন জোনাথন।

গতকাল তাঁকে টনটন ক্রাউন কোর্টের বিচারক ডেভিড টাইসহার্স্ট তিন বছর নয় মাস জেলের সাজা দিয়েছেন। বিচারক বলেছেন, আপনার কবর আপনি নিজেই খুঁড়েছেন। আপনার প্রতি সহানুভূতি দেখানোর কোনও জায়গা নেই। আপনি ছিলেন ওদের ভরসাস্থল। কিন্তু সেই আপনিই ওদের অপরিমেয় ক্ষতি করেছেন।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই