মেইন ম্যেনু

গোলাপ জলে রূপ চর্চা

রুপের যত্নে গোলাপ জল সব সময়ই উপকারি। ত্বক চুল ভাল রাখতে গোলাপ জলের জুড়ি মেলা ভার। রোজ ওয়াটার বা গোলাপ জল কিভাবে ব্যবহার করে কিভাবে রূপ চর্চা করতে পারেন জেনে নিন সেই কৌশল।

এক. চোখে মুখে রোজ ওয়াটার বা গোলাপ জল ছেটালে চেহারায় ফ্রেশ ভাব আসে। প্রতিদিন মেক আপ করার আগে যদি ছেটানো যায় তাহলে চেহারায় মেকআপও ভাল বসে। চেহারায় ফ্রেশভাবও আসে।

দুই. নিয়মিত চুলে গোলাপ জল ও গ্লিসারিন সমপরিমান মতো তুলার সাহায্যে তালুতে লাগিয়ে ১০ থেকে ১৫ মিমিনট ম্যাসেজ করা গেলে রুক্ষ চুলও মসৃণ হয়। ম্যাসের ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করতে হবে।

তিন. ত্বকের যত্বে ফেস ওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে এক টেবিল চামুচ ওরাজ ওয়াটার ও কয়েকফোটা গ্লিসারিন মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে নিন। এতে ফেশিয়াল ক্লিনজারের কাজ দেবে।

চার. চোখে যদি ক্লান্ত ও ফোলা ভাব থাকে তাহলে বরফ ঠান্ডা গোলাপ জলে তুলো ভিজিয়ে চোখের উপর ১০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। দেখবেন ফোলা ও লাল ভাব কমে যাবে।

পাঁচ. ন্যাচরাল কন্ডিশনার হিসেবে খুব ভাল কাজ করে গোলাপ জল। এর জন্য শ্যাম্পু করার পর এক কাপ রোজ ওয়াটার দিয়ে চুলগুলো ধুয়ে নিন।

ছয়. ফেশিয়াল দিয়ে ত্বক ধুয়ে ঠান্ডা গোলাপ জল লাগিয়ে নিন। চেহারার স্ট্রেসভাব কমে যাবে।

সাত. রোজ ওয়াটারের সঙ্গে সমপরিমান লেবুর রস মিশিয়ে অ্যাকনের উপর লাগিয়ে ৩০ মিনিট রাখুন।মুখ ধুয়ে এরপর যে কোনও ভাল ফেস প্যাক গোলাপ জলে গুলে মুখে লাগালেও উপকার পাবেন।

আট. গোলাপ জলের মধ্যে কয়েক ফোটা নারকেল তেল মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রন তুলোয় নিয়ে আলতো করে মেকআপ তুলতে পারেন। এতে পেকআপও উঠবে আবার ত্বকে পুষ্টিও যোগাবে।

নয়. দুই টেবিল চামচ ময়দার সঙ্গে লেবুর রস ও গোলাপ জল মিশিয়ে পেস্ট তৈরী ১৫ মিনিট চেহারায় লাগান, উপকার পাবেন।

দশ. ক্লান্তি দূর করতে আমন্ড তেল বা ক্রিমের সঙ্গে রোজ ওয়াটার মিশিয়ে নিয়ে গোটা শরীর ময়শ্চারাইজ করুন। এতে ত্বকও ভাল থাকবে।






মন্তব্য চালু নেই