মেইন ম্যেনু

গ্যাটকো মামলার রায় যেকোনো দিন

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা গ্যাটকো দুর্নীতি মামলার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার করা দুই আবেদনের ওপর শুনানি শেষ হয়েছে বুধবার। এর রায় যেকোনো দিন ঘোষণা করা হবে।

বিচারপতি মো. নুরুজ্জামান ননি ও বিচারপতি আব্দুর রবের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের একটি ডিভিশন বেঞ্চ বুধবার এ আদেশ দেন। এ দুটি আবেদনের ওপর বুধবার শুনানি শেষ করার পর আদালত এ আদেশ দেন। বিষয়টি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন ব্যারিস্টার রাগিব রউফ চৌধুরী।

আদালতে খালেদার পক্ষে শুনানি করেন সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এজে মোহাম্মদ আলী, সুপ্রিমকোর্ট বারের সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, ব্যারিস্টার রাগীব রউফ চৌধুরী। তাদের সহযোগিতা করেন অ্যাডভোকেট জাকির হোসেন ভূঁইয়া। অন্যদিকে দুদকের পক্ষে ছিলেন খুরশীদ আলম খান।

উল্লেখ্য, ২০০৭ সালে ২ সেপ্টেম্বর দুদকের উপ-পরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী মতিঝিল থানায় খালেদা জিয়া ও তার ছোট ছেলে প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোসহ ১৩ জনকে আসামি করে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলায় চট্টগ্রাম ও কমলাপুরের কন্টেইনার টার্মিনালে কন্টেইনার হ্যান্ডেলিংয়ের জন্য মেসার্স গ্লোবাল এগ্রোটেড লিমিটেডকে (গ্যাটকো) ঠিকাদার হিসেবে নিয়োগ দিয়ে রাষ্ট্রের কমপক্ষে ১ হাজার কোটি টাকা ক্ষতি করার অভিযোগ আনা হয়। এরপর ২০০৮ সালের ১৩ মে খালেদা জিয়াসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। অভিযোগপত্র দায়েরের পর মামলাটির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন খালেদা জিয়া। ২০০৮ সালের ১৫ জুলাই হাইকোর্ট মামলাটি কেন বেআইনি ও কর্তৃত্ব বহির্ভূত হিসেবে ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করা হয়। একই সঙ্গে মামলার কার্যক্রম দুইমাসের জন্য স্থগিত করেন আদালত। সময়ে সময়ে এ স্থগিতাদেশ বাড়ানো হয়।

চলতি বছর ওই রুলের ওপর শুনানির জন্য দুদকের পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়। এরপর বেশ কয়েকদিন এ রুলের ওপর শুনানি করা হয়। আজ বুধবার আদালতে এ রুলের শুনানি শেষ করে যেকোনো দিন রায় ঘোষণা করা হবে মর্মে আদেশ দেয়া হয়।






মন্তব্য চালু নেই